/

জন্ম মাস অনুজায়ী জেনে নিন আপনার ব্যক্তিত্ব

শুধুমাত্র গ্রহ না নক্ষত্র নয়, জন্মমাসও প্রভাবিত করে আপনার রাশিকে৷ সোজা কথায় বললে আপনার ব্যক্তিত্বকে৷ কীভাবে? আসুন জেনে নিই তা বিশদে- জানুয়ারি: এই মাসে যাঁরা জন্মান তাঁরা কঠোর পরিশ্রমী হন এবং অত্যাধিক কেরিয়ার সচেতন৷ মানুষ হিসেবে এরা যথেষ্ট বিশ্বস্ত এবং ভালো শ্রোতা হন৷ তবে এঁরা প্রচণ্ড পরিমাণে আবেগী ও   বিস্তারিত এখানে

comments (0) / Read More

/ Labels: , ,

Yearly Bangla Rashifal 2015: বাৎসরিক বাংলা রাশিফল 2015



এই 'রাশিফল 2015' সমস্ত রাশির জন্য আপনার নিজের ভাষায়। এটি আপনার 2015 সাল কেমন যাবে সেটারপূর্বানুমা । যদি আপনি এই বছর কোন সমস্যার সম্মুখীন হন, তাহলে সেই সব সমস্যা সমাধানের কার্যকর উপায়পাবেন। এটি 2015 সালে আপনাকে সাফল্য ও সমৃদ্ধিতে পদস্থাপন করতে সাহায্য করবে। এই রাশিফল আপনারজীবনের মুখ্য কতগুলি বিষয় যেমন আপনার পারিবারিক স্থিতি, আর্থিক স্থিতি, প্রেম এবং বিবাহ জীবন, শিক্ষা এবংকর্মজীবন ইত্যাদি কেমন যাবে তার পূর্বানুমান করবে।

comments (0) / Read More

/ Labels:

"জন্ম তারিখ" দিয়ে জেনে নিন আপনার ব্যক্তিত্ব!

আপনার জন্মদিনের তারিখটা কত? আজকালকার দিনে আমরা সবাই নিজের নিজের জন্মদিন জানি। একে অন্যকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানানোটাও এখন অভ্যাসে পরিণত হয়ে গেছে আমাদের। কিন্তু আপনার এই যে জন্মদিন, সেটা কি শুধুই একটি সংখ্যা? নাকি এরও রয়েছে কোনও তাৎপর্য? রাশিতত্ত্বের নিউমারলজি বা সংখ্যাতত্ব অনুযায়ী, আপনার ব্যক্তিত্বের ওপর এই জন্মদিনের রয়েছে অনেক বড় প্রভাব। জন্মদিন ব্যবহার করে আপনার ব্যক্তিত্ব নির্ণয় করার রয়েছে একটি চমৎকার উপায়। এ প্রক্রিয়ায় আপনি নিজের জন্মদিন থেকে বের করে নিতে পারবেন একটি বিশেষ সংখ্যা যা বলে দেবে আপনার ব্যক্তিত্বের বিচিত্র সব তথ্য।
কি করে বের করবেন আপনার এই সংখ্যাটি
পদ্ধতিটি বেশ সহজ আসলে। জন্মদিন ১ তারিখ হলে আপনার এই সংখ্যাও ১। ধরে নেওয়া যাক আপনার জন্মদিন হলো ২৬ তারিখে। তাহলে (২+৬)= ৮ হবে আপনার সংখ্যা। জন্মদিন যদি হয় ১০ তারিখে, তবে সংখ্যা হবে (১+০)=১। একই কথা ২০ এবং ৩০ তারিখের ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য। এখন যদি জন্মদিন হয় ২৯ তারিখে তবে সংখ্যা কত হবে? (২+৯)= ১১ হবে। কিন্তু এই ১১ কে আবারও যোগ করতে হবে যতক্ষণ না একটা সংখ্যা আসে অর্থাৎ (১+১)=২ হবে তার সংখ্যা। এখানে আরেকটা কথা আছে। যার জন্মদিন ১১ বা ২২, তার সংখ্যাও ১১ বা ২২, একে আর যোগ করতে হবে না। সংখ্যা তো বের হলো, এবার দেখে নিন এই সংখ্যা অনুযায়ী আপনার ব্যক্তিত্ব কেমনঃ আপনার সংখ্যা যখন ১ এক হলো নেতা, পথ প্রদর্শক। শুধু তাই নয়, একা একাই পথ চলার ক্ষেত্রেও তিনি পারদর্শী। তিনি স্বাধীনভাবে জীবন কাটিয়ে দিতে পারেন। জীবনের সব ক্ষেত্রেই প্রথম হবার উচ্চাকাঙ্খা দেখা যায় তার মাঝে। এ কারণে আত্মবিশ্বাস এবং দৃঢ়তা দেখা যায় তার মাঝে। কিন্তু এর পাশাপাশি কখনো কখনো অহংকার এবং আত্মকেন্দ্রিক হতে দেখা যায় তাদেরকে। প্রেমের ক্ষেত্রেও তারা কর্তৃত্বপরায়ন হয়ে থাকেন। তবে যথেষ্ট উত্তেজনা না থাকলে ভালোবাসাও তাদের কাছে একঘেয়ে মনে হয়। আপনার সংখ্যা যখন ২ এরা হয়ে থাকেন মধ্যস্থতাকারী এবং শান্তিপ্রিয়। শান্তি এবং স্থিতি ভালোবাসেন তারা। তাদের চরিত্রে থাকে উষ্ণতা। তারা নিজেদের জীবনেও শান্তি পছন্দ করেন এবং হয়ে থাকেন কিছুটা স্পর্শকাতর। তবে তারা অন্যের ওপরে নির্ভরশীল হয়ে থাকেন। নিজের উদ্দেশ্য হাসিলের জন্য কখনো কখনো কূটচালের আশ্রয় নিয়ে থাকেন। প্রেমের ক্ষেত্রেও তারা পছন্দ করেন স্থিতিশীলতা। সম্পর্ক টিকিয়ে রাখার জন্য যা দরকার সবই করতে রাজি থাকেন তারা। এক্ষেত্রে জন্মতারিখ যেটাই হোক না কেন, অনেকটা কর্কট রাশির সাথে মিল রয়েছে তাদের। আপনার সংখ্যা যখন ৩ এরা হয়ে থাকেন বেশ সামাজিক এবং আমুদে মানুষ। দয়ালু এবং ইতিবাচক মনোভাবের এসব মানুষ জীবনকে উপভোগের চেষ্টা করেন সব সময়ে। তাদের রসবোধও অনেক ভালো। তবে কখনো তারা হয়ে উঠতে পারেন এলোমেলো স্বভাবের, হতে পারেন অতিরিক্ত বিলাসী। প্রেমের ক্ষেত্রে কিছুটা দুরত্ব বজায় রাখেন তারা, দরকার হয় একটু স্বাধীনতা। নয়তো তারা নিজেদের বন্দী মনে করেন এবং সেই সম্পর্ক ভেঙে ফেলার চেষ্টা করেন। আপনার সংখ্যা যখন ৪ এরা হয়ে থাকেন পরিশ্রমী এবং কাজের মানুষ। অন্যকে সাহজ্য করতেও তাদের জুড়ি নেই। বিশ্বস্ত মানুষ হয়ে থাকেন ৪ সংখ্যার মানুষ। যুক্তি দিয়ে কাজ করে সমস্যা সমাধান করেন তারা। আর নিজেই নিজেকে শাসনে রাখতে পারেন তারা। তবে কখনো কখনো খুব বেশি গোঁয়ার হয়ে থাকেন। প্রেমের ক্ষেত্রে তারা বিশ্বস্ত হয়ে থাকলেও কখনো খুব বেশি আবেগি এবং হতাশ হয়ে পড়েন। সংখ্যা যাদের ৫, তাদের সবচাইতে বড় বৈশিষ্ট্য হলো তারা স্বাধীনতা পছন্দ করেন। তারা হয়ে থাকেন বুদ্ধিমান, মাথায় যাদের গিজগিজ করে আইডিয়া। যে কোনও পরিস্থিতিতে নিজেকে খাপ খাইয়ে নিতে চেষ্টা করেন তারা। হয়ে থাকেন আমুদে এবং নমনীয় প্রকৃতির। কিন্তু মাঝে মাঝে দায়িত্ব পালনে এদের অনীহা দেখা যায়। কোনও কাজে লেগে থাকতে হলে তা করার ক্ষেত্রে অনুৎসাহী হয়ে পড়েন। প্রেমের ক্ষেত্রে অপর পক্ষ থেকে যথেষ্ট সাড়া না পেলেও তারা উৎসাহ হারিয়ে ফেলেন। আপনার সংখ্যা যখন ৬ অনেকটা ২ এর মতো, সংখ্যা ৬ এর মানুষ হয়ে থাকেন শান্তিপ্রিয়। পরিবারের প্রতি অনুগত থাকেন তারা। যাকে ভালোবাসেন তার জন্য নিজেকে উজাড় করে দিতে পারেন। তবে তার প্রতি একটা অধিকার স্থাপন করে ফেলেন তিনি, এবং কখনো কখনো হয়ে ওঠেন ঈর্ষান্বিত।

comments (0) / Read More

/ Labels: , , , ,

কেমন যাবে আপনার ২০১৪? জেনে নিন জ্যোতিষীর দৃষ্টিতে!

নিজের ভাগ্য বা ভবিষ্যত্‍ সম্পর্কে জানার আগ্রহ মানুষের সেই প্রাচীনকাল থেকেই। এই জানার অদম্য ইচ্ছার কারণেই জ্যোতিষশাস্ত্রের জন্ম। জ্যোতিষবিদ্যার রয়েছে অনেকগুলো পদ্ধতি। এর মধ্য নিউমারলজি বা 'সংখ্যা-জ্যোতিষ' অন্যতম। এ পদ্ধতিতে জন্ম তারিখ, রাশির ভর সংখ্যা ও বছর বা দিনের নির্দিষ্ট সংখ্যা ইত্যাদি বিশেষ নিয়মে হিসাব করে ভাগ্যফল নির্ণয় করা হয়।
বিশ্বাস থাকুক আর নাই থাকুক,চোখের সামনে পড়লে রাশিফলে চোখ বুলিয়ে নেই কমবেশি সকলেই। যারা বিশ্বাসী তারা নিজের জীবনের সাথে মনে মনে মিলিয়ে দেখি। যারা অবিশ্বাসী তারা পড়ার পর ভুলে যাই। তবে জ্যোতিষ শাস্ত্রে বিশ্বাস-অবিশ্বাস যাই থাকুক না কেন, নিজের ভবিষ্যতটা কিন্তু জানতে চান সবাই।
২০১৪ সাল কেমন যাবে আপনার?  তা জানিয়েছেন শখের জ্যোতিষী ইমতিয়াজ শাফিকুল ইসলাম। আপনার রাশি অনুযায়ী জ্যোতিষশাস্ত্র মতে কেমন যাবে আপনার নতুন বছর, জেনে নিতে পারেন এই লেখায়।

মেষ Aries

২১ মার্চ - ২০ এপ্রিল
ভর#৬>
মেষরাশির জাতক/জাতিকা তাদের জেদ এবং একগুঁয়েমির কারণ খানিকটা বদনাম হলেও এই জেদের কারণেই তারা কাজের পেছনে লেগে থাকেন এবং সাফল্য লাভ করেন। আপনার কি কাজের পেছনে লেগে থাকার মন-মানসিকা রয়েছে? তাহলে জানিয়ে দিচ্ছি, ২০১৪ তে আপনার প্রচুর কাজের সুযোগ রয়েছে। আর সেই সাথে রয়েছে সাফল্যও! সংখ্যা-জ্যোতিষ অনুযায়ী ২০১৪ সাল থাকবে সংখ্যা ৭-এর ঘরে। অর্থাত্‍ ২+০+১+৪=৭। ৭ একটি প্রভাবশালী সংখ্যা। ৭ কে সৌভাগ্যের প্রতীক হিসেবে গণ্য করা হয়। এ পুরো বছর যেমন ৭-এর প্রভাবে থাকবে, তেমনি থাকবেন আপনিও। ২০১৩ আপনার যেমনই কেটে থাকুক না কেন, ২০১৪-এর জন্য করুন নতুন পরিকল্পনা। বছরের শুরুর দিকটা ভালো-মন্দে মিশিয়ে কাটলেও বছরের মাঝামাঝি থেকে আপনার সাফল্যের তালিকা দীর্ঘ হতে থাকবে।

বৃষ Taurus

২১ এপ্রিল - ২১ মে
ভর#১>
বৃষ যাদের আপন ভাবেন তাদের জন্য জান-প্রাণ দিয়ে দেন। আর যারা থাকে তার অপছন্দের তালিকায়, তাদের দিকে ফিরেও তাকান না! বৃষরাশির জাতক/জাতিকার সহজেই অন্যের ওপর ভরসা করেন বলে ঠকেনও খুব সহজেই। এদিক দিয়ে চিন্তা করলে ২০১৩ সাল গিয়েছে অতি আপনজনের কাছে ঠকে। ২০১৩ সাল ছিল আপনার জন্য দ্বিধাদ্বন্দ্বে ভরা এবং সিদ্ধান্তহীনতার একটি বছর। ২০১৪ তে তেমন কিছু নেই। বরং এ বছরটি আপনার জীবনের বাঁক ঘুরিয়ে দেবে! বছর কাটবে প্রচুর আনন্দে। হাতে আসবে বড় বড় সাফল্য, পাবেন মানুষের ভালোবাসা ও সহযোগিতা। দু-একজন মানুষ হয়তো আপনার প্রতি বিরূপ থাকবে, কিন্তু তাতে কী? বিশেষ করে যারা ব্যবসা ও সৃজনশীল কাজের সাথে জড়িত, তাদের সাফল্যের পরিমাণ বেশি। চাকরিজীবীরা করবেন কর্মক্ষেত্রে উন্নতি। বছরের শেষের দিকে অনেকেরই বিদেশযাত্রার যোগ রয়েছে।

মিথুন Gemini

২২ মে - ২১ জুন
ভর#৬>
মিথুনের রয়েছে খরস্রোতা নদী সাঁতরে পার হবার দুর্নিবার সাহস। সেই সাথে রয়েছে বাস্তবতার মুখোমুখী হবার প্রেরণা। ২০১৪ মিথুনের জন্য খুবই সম্ভাবনাময় একটি বছর। ছোট-খাট বাধা আসতে পারে, তবে তাতে থমকে যাওয়ার মতো ব্যক্তিত্ব মিথুনের নয়। মিথুন জাতক/জাতিকার বর্তমান জীবনে যে বিরূপ সময় চলছে, তা কেটে যাবে আগামী কয়েক মাসের মধ্যেই। মিথুনরাশির জাতক/জাতিকা খুবই আবেগপ্রবণ হয়ে থাকেন। এ বছর আপনার আবেগকে নিয়ন্ত্রণ করে যুক্তি দিয়ে চলুন। নিজের সিদ্ধান্ত নিজে নিন, অন্যের কানকথায় মন দেবেন না। তাহলে ২০১৪ সাল আপনাকে এনে দেবে মানসিক প্রশান্তি ও সাফল্য।

কর্কট Cancer

২২ জুন - ২২ জুলাই
ভর#২>
কর্কটের রয়েছে অসীম কল্পনাশক্তি ও শক্তিশালী বাস্তবতা বোধ। এ দুয়ের মিশ্রণে কর্কটের ব্যক্তিত্ব হয় অনবদ্য। ২০১৩ সাল ককর্টের গিয়েছে মিশ্রভাবে। কখনো সাফল্য ধরা দিয়েছে, কখনো দেয়নি। কর্কটরাশির জাতক/জাতিকার নিজের ওপর আস্থা রাখুন। ২০১৪ তে সংকট আসলেও তা পেরিয়ে পৌঁছে যাবেন সাফল্যের কাছে। মানসিক অস্থিরতাও কমবে এ বছর। সৃজনশীল কাজের সাথে জড়িত রয়েছেন, তারা পাবেন অবিস্মরণীয় সাফল্য।

সিংহ Leo

২৩ জুলাই - ২৩ আগস্ট
ভর#১>
রাশিচক্রে সিংহের রয়েছে বিশেষ রকমের প্রতিপত্তি। সিংহরাশি জাতক/জাতিকারা হন স্বভাবে ধীর-স্থির। অনেকে অল্পতে রেগে গেলেও দ্রুত নিজের বিচারবুদ্ধিতে ফিরে আসেন। রাগী সিংহদের জন্য রইলো বিশেষ পরামর্শ, ধৈর্য ধরুন, মাথা ঠান্ডা রেখে সিদ্ধান্ত নিন। ২০১৩ ছিল সিংহের জন্য অবিস্মরণীয় একটি বছর। বেশির ভাগ সিংহরাশির জাতক/জাতিকাদের জীবনে এসেছিল ব্যাপক পরিবর্তন। ২০১৪ সালও আপনার জীবনের মোড় ঘুরিয়ে দেবে। ব্যক্তিগত এবং সামাজিক অর্জন বৃদ্ধি পাবে। পরিশ্রম বেড়ে যাবে সেই সাথে বাড়বে উপার্জনও। সকল পেশাজীবীর পেশাগত জীবনে আসবে সাফল্য।

কন্যা Virgo

২৪ আগস্ট -২৩ সেপ্টেম্বর
ভর#২>
অতিরিক্ত আবেগী হিসেবে কন্যারাশির জাতক/জাতিকারা অল্পতেই মনে আঘাত পান। নিন্দা বা কটু কথায় সহজেই বিচলিত হয়ে পড়েন কন্যা। তবে এই স্পর্শকাতরতার কারণে কাজে সাফল্যও অর্জন করেন কন্যারাশির জাতক/জাতিকারা। ২০১৩ তে অনেক চড়াই-উতরাই পার করতে হলেও ২০১৪ এনে দেবে চমত্‍কার একটি সময়। ২০১৩ তে কন্যার ভাগে পড়েছিল মন্দের পরিমাণ বেশি, কিন্তু এ বছরজুড়ে বেশির ভাগ সময়েই কন্যা থাকবেন সাফল্যের চূড়ান্তে। পরিশ্রমের পরিমাণ যাবে বেড়ে, তাই পরিশ্রম অনুযায়ী পাশাপাশি বিশ্রামও নিন যথেষ্ট পরিমাণে। এ বছর আপনার অর্জনের পরিমাণ থাকবে বেশি।

তুলা Libra

২৪ সেপ্টেম্বর - ২৩ অক্টোবর
ভর#২>
সাহসী ও অনুভবি তুলার জন্য ২০১৩ ছিল একটি বিশেষ বছর। অনেক গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে এ বছরে। ২০১৩ ছিল তুলার জন্য পরিবর্তনের বছর। ২০১৪ তেও তুলার জন্য রয়েছে নতুন চ্যালেঞ্জ। সাহসী তুলা এই চ্যালেঞ্জে সহজেই উতরে যাবেন। আর্থিক ও জাগতিক দিক দিয়ে এ বছরটা তুলার জন্য খুবই শুভ। অর্জনের খাতাটারও অনেক পৃষ্ঠা এ বছরে ভরে যাবে। তাই তুলারাশির জাতক/জাতিকারা, বুক ভরে শ্বাস নিন এবং এগিয়ে চলুন নতুন বছরে।
ওকে

বৃশ্চিক Scorpio

২৪ অক্টোবর - ২২ নভেম্বর
ভর#৭>
বৃশ্চিক কর্মঠ, পরিশ্রমী, একগুঁয়ে ও স্থিরবুদ্ধির অধিকারী হিসেবে পরিচিত। ২০১৩ গিয়েছে বৃশ্চিকের মিশ্রভাবে। ২০১৪ বৃশ্চিকের জন্য নিয়ে আসবে শুভবার্তা। বৃশ্চিকরাশির জাতক/জাতিকারা এ বছর কর্মে থাকবেন ব্যস্ত। ফলে সময় কাটবে সুন্দর। আর্থিক অবস্থাও থাকবে চমত্‍কার। কর্মজীবনে ও সামাজিক জীবনে সফলতার পথ হবে সুগম। ২০১৪ সাল রয়েছে সংখ্যা ৭-এর ঘরে। আবার বৃশ্চিকের ভরসংখ্যাও ৭। বছর ও ভরের এ মিল অত্যন্ত শুভ। তাই বৃশ্চিক দুশ্চিন্তা ও দোটানা মন থেকে সরিয়ে উদ্যম নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়ুন নতুন বছরে।

ধনু Sagittarius

২৩ নভেম্বর - ২১ ডিসেম্বর
ভর#৯>
ধনুর রয়েছে চিন্তার গভীরতা। সাবধানী হিসেবেও ধনুর সুনাম রয়েছে। ধনুর ভরসংখ্যা ৯। এদিকে ২০১৪ রয়েছে ৭-এর ঘরে। এখন, ৯+৭=১৬। আবার, ১+৬=৭। এই ৭ একটি প্রভাবশালী সংখ্যা তা আগেই বলা হয়েছে। ৭ এর প্রভাবেই কাটবে ধনুর পুরোটা বছর। ধনু এ বছর থাকবেন মানসিকভাবে ক্রিয়াশীল। সৃজনশীল কাজে আসবে সফলতা। সব কাজে আসবে পূর্ণতা। এ বছর কোনো বাধাই ধনুকে আটকাতে পারবে না। সক্ষম হবেন সব কাজে সফল হতে। সব মিলিয়ে ধনুরাশির জাতক/জাতিকার কাটবে চমত্‍কার একটি বছর।

মকর Capricorn

২২ ডিসেম্বর - ২০ জানুয়ারী
ভর#৩>
রাশিগতভাবে মকর সাহসী ও পরিশ্রমী। মকররাশির জাতক/জাতিকা মাত্রই কঠোর সংগ্রামে অভ্যস্ত। ২০১৩ সাল মকরের জন্য তেমন কোনো শুভ ফলাফল আনতে পারেনি। তবে ২০১৪ সাল মকরের জন্য সার্বিকভাবে শুভ। প্রচুর সাফল্য রয়েছে এ বছরে। আর্থিক সমস্যাও কেটে যেতে শুরু করবে বছরের প্রথমেই। এ বছর মকরকে অনেক গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিতে হতে পারে। চিন্তাভাবনা করে সিদ্ধান্ত নেবেন। কারণ এর সাথে জড়িয়ে থাকবে আপনার পুরো জীবনের শুভাশুভ। এ বছর বাধা কিছু আসবে, তবে সেগুলো পার হতে পারবেন খুব সহজেই।

কুম্ভ Aquarius

২১ জানুয়ারি - ১৮ ফেব্রুয়ারি
ভর#৯>
নিজের সাথে কথপোকথন কুম্ভর জন্য খুবই জরুরি। নিজের আত্মবিশ্লেষণ করুন ও নিজের দোষ-গুণ নিয়ে ভাবুন। কুম্ভর জন্য ২০১৪ একটি সফল বছর। আর্থিক সচ্ছলতা আসবে। সামাজিক যোগাযোগ বৃদ্ধি করুন। আপনার আপন মানুষদের খোঁজখবর করুন এবং তাদের খেয়াল রাখুন। প্রত্যুত্তর অবশ্যই পাবেন। প্রিয় কুম্ভ, বছরের শুরুটা একই সাথে ভালো এবং মন্দ হবে। তবে ধীরে ধীরে ভালোর পরিমাণ বৃদ্ধি পাবে। তাই, 'মেঘ দেখে কেউ করিসনে ভয়, আড়ালে তার সূর্য হাসে'!

মীন Pisces

১৯ ফেব্রুয়ারি - ২০ মার্চ
ভর#৩>
বন্ধুবত্‍সল ও উদার হিসেবে মীন বিশেষ সুপরিচিত। মীন একটি মহত্‍ রাশি। অনেক মহান ব্যক্তি এ রাশিতে জন্মগ্রহণ করেছেন। মীন সাহসী, উদ্যমী ও পরিশ্রমী। ২০১৩ সালে যে দুর্ভোগ শুরু হয়েছে, তা ২০১৪ তে অনেকটা হ্রাস পাবে। ভেঙে পড়বেন না, সামনে সুদিন আসছে। মীনরাশির জাতক/জাতিকারা যোদ্ধা প্রকৃতির হয়ে থাকেন। তাই সহসাই লড়াইয়ের ময়দান ছেড়ে দেয়া মোটেও বুদ্ধিমানের কাজ হবে না। ধৈর্য ধরুন এবং সামনে এগিয়ে চলুন। নতুন বছরে দেখিয়ে দিন আপনার সাহস এবং দিয়ে দিন আপনার শত্রুদের মুখে ছাই!
সূত্র: প্রিয়.কম

comments (0) / Read More

/ Labels: , , ,

রাশি চক্রের চোখে কেমন যাবে আপনার ২০১৪ সালটি


২০১৪-তে আমরা সবাই থাকব ২+০+১+৪ = ৭-এর ঘরে। ৭ হচ্ছে একটি আধ্যাত্মিক ও শুভ সংখ্যা। এর ইতিবাচক প্রভাব সবখানেই পড়বে। তবে এটিও মনে রাখা বাঞ্ছনীয়, রাশি কখনোই ভাগ্যনিয়ন্তা নয়। মানুষের কর্মই তার ভাগ্য নির্ধারণ করে। জ্যোতিষশাস্ত্র কেবল কিছু সূত্র ধরে সম্ভাবনার পথ বাতলে দেয়। সংখ্যাতত্ত্বের নিরিখে বাংলাদেশ প্রতিদিন-এর আজকের বিশেষ আয়োজনে ১২ রাশির ২০১৪ সালের রাশিফল তুলে ধরা হলো।   

মেষ  [২১ মার্চ-২০ এপ্রিল]
মেষ রাশির শুভ সংখ্যা ৩ ও ৯।
শুভ রং : লাল, বেগুনি ও সাদা।
শুভ রত্ন : প্রবাল,  শুভ ধাতু : তাম্র 
মেষ রাশির বৈশিষ্ট্য : মেষ রাশি মঙ্গলগ্রহের জাতক। জয়ের নেশায় প্রাণান্ত লড়াই করা মেষ জাতকের স্বভাব। মেষ জাতক-জাতিকার মধ্যে সাহস, ব্যক্তিত্ব ও তেজস্বী মনোভাবের প্রাবল্য থাকে। মেষ রাশির জন্মকালে মঙ্গল, রবি, বৃহস্পতি ও বুধ অনুকূল থাকলে তা জীবন সংগ্রামে সাফল্য আনতে বিশেষ সহায়তা করে। সব কাজে এরা নেতৃত্ব দিয়ে থাকে। এদের জীবনীশক্তি অত্যধিক।
নতুন বছরটি কেমন যাবে : অতীতের বাধাবিঘ্ন পাড়ি দিয়ে এগিয়ে যাবেন ২০১৪ সালে। নতুন উদ্দীপনায় জেগে উঠুন। যারা পরীক্ষার ফলাফল নিয়ে দুশ্চিন্তায় ছিলেন, এ বছর তাদের কেউ কেউ প্রত্যাশার চেয়ে ভালো ফলাফল অর্জন করবেন। অতি আনন্দ নিরানন্দের কারণ হতে পারে নববিবাহিত দম্পতিদের ক্ষেত্রে, সংযমী হতে হবে। রাজনীতিতে যোগ দিতে হতে পারে। বেকারদের জন্য বছরটি ঘটনাবহুল হবে। এ ছাড়া শিক্ষকদের সঙ্গে মতবিরোধেও জড়িয়ে পড়তে পারেন কেউ কেউ। সম্পত্তির ভাগ-বাটোয়ারা নিয়ে একাধিকবার পারিবারিক কলহের সৃষ্টি হতে পারে। এ বছর একাধিক সফল প্রেমের শুভ সূচনা ঘটবে। পাশাপাশি পরকীয়ার ঘটনা ঘটতে পারে বেশ কয়েকটি। পুরো বছরটিকে আপনি দুটো ভাগে ভাগ করে নিতে পারেন।প্রথম ভাগে আপনার পেশাগত জীবনের গতি কিছুটা ধীর হয়ে আসতে পারে। অল্প সময়ের মধ্যে অনেক কঠিন কঠিন কাজের চাপ আপনার জীবনকে অভাবনীয় বিরক্তির মুখে ফেলতে পারে। এমনও হতে পারে আপনাকে কোনো একটি প্রকল্প সামলাতে হবে। কী করবেন? প্রথমেই মাথাটা ঠাণ্ডা রাখুন। প্রয়োজন মতো ঘুমিয়ে নিন। নিজের জীবনীশক্তির উপর বিশ্বাস রাখুন। এর মাঝেই আবিষ্কার করে ফেলতে পারেন নিজেকে। তাহলেই সাফল্য ধরা দিবে।

বৃষ [২১ এপ্রিল-২১ মে]
বৃষ রাশির শুভ সংখ্যা ৬।
শুভ রং : আকাশি, কমলা।
শুভ রত্ন :  পান্না,  শুভ ধাতু : প্লাটিনাম
বৃষ রাশির বৈশিষ্ট্য : বৃষ রাশির মধ্যে রয়েছে এক অনমনীয় দৃঢ়তা অথচ তাদের মধ্যে স্নেহ, মমতা, ভালোবাসা ও আনন্দ উপভোগের অভিলাষও কম নয়। এরা সাধারণত ধীরস্থির, ভদ্র ও শান্ত প্রকৃতির হয়ে থাকে। এরা সুশৃঙ্খল এবং আইন-কানুনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হয়। এরা যে কাজে নিযুক্ত হয় সে কাজে সাফল্য লাভের তীব্র ইচ্ছা পোষণ করে। নতুন বছর বছরের আগাগোড়াই স্বাস্থ্য মোটামুটি ভালো যাবে। অবিবাহিতদের হঠাত্ বিয়ের যোগ, নতুন কেউ বন্ধুত্বের হাত বাড়িয়ে দেবে। বিপরীত লিঙ্গের কেউ সুন্দর বুদ্ধি দিয়ে সাহায্য করতে পারে। ব্যবসা ক্ষেত্রে সম্ভাবনার নতুন দিগন্ত উন্মোচিত হবে। বৈদেশিক যোগাযোগের ক্ষেত্রে দীর্ঘদিনের প্রচেষ্টা এ বছর সাফল্যের মুখ দেখবে। তৈরি পোশাক রপ্তানির ক্ষেত্রে যে মন্দাভাব বিরাজ করছিল  তার অবসান হবে।
কেমন যাবে : ছাত্রছাত্রীদের জন্য বছরটি অত্যন্ত শুভ। বিশেষ করে তরুণ-তরুণীরা এ বছর ভালো ফল পাবে। যারা বিদেশে অধ্যয়নে আগ্রহী, এ বছর তাদের অনেকেই এ ক্ষেত্রে সুযোগ পাবেন। ছাত্রছাত্রীদের কেউ কেউ বিভিন্ন প্রতিযোগিতা-মূলক কর্মকাণ্ডে অংশ নিয়ে সফল হবেন। গেল বছরের জঞ্জাল কেটে যাবে এ বছর। কোনো কোনো ক্ষেত্রে ভেঙে যাওয়া প্রেম জোড়া লাগতে পারে। বন্ধুত্বের সম্পর্ক কোনো কোনো ক্ষেত্রে প্রেমে রূপ নিতে পারে। তবে প্রেমের বিয়ের বিষয়ে দুই পক্ষকেই আরও সতর্ক দৃষ্টি রাখতে হবে।

মিথুন [ ২২ মে-২১ জুন]
মিথুন রাশির শুভ সংখ্যা ৫।
শুভ রং : হালকা সবুজ, ক্রিম।
শুভ রত্ন : পোখরাজ, শুভ ধাতু :  রুপা। 
মিথুন রাশির বৈশিষ্ট্য : মিথুন রাশি বুধ গ্রহের জাতক। বড় রহস্যপূর্ণ এই রাশি। দ্বৈততা এদের চরিত্রে প্রকট। বৈচিত্র্যপ্রিয় এই রাশির পুরুষ জাতকের যেমন রয়েছে দৃঢ়তা, কর্মশক্তি ও উত্পাদন শক্তি, তেমনি জাতিকার রয়েছে নারীসুলভ মমতা, নম্রতা, ভালোবাসা এবং স্নেহ। এদের বুদ্ধি খুব তীক্ষ হয়ে থাকে। সৃজনশীল কাজ, শিল্প-সাহিত্য, সংগীত, নৃত্য এবং অভিনয়ে এদের যোগ্যতা থাকে। এদের মধ্যে উদারতা, পর দুঃখকাতরতা এবং দৈবানুভূতি প্রবল হয়। একই সঙ্গে দুটো কাজে লেগে থাকা মিথুনের আরেকটি স্বভাব। নির্ভীক ও আত্মবিশ্বাসীও এদের চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য।
নতুন বছর কেমন যাবে :  এ বছর সাহিত্যকর্মের জন্য বিদেশের কোনো প্রতিষ্ঠান থেকে সম্মাননা পাওয়ার সম্ভাবনা আছে। চিত্রশিল্পীদের কারও কারও আঁকা ছবি বিদেশের মাটিতেও প্রশংসা কুড়াবে। এ বছর ছাত্রছাত্রীদের অনেকেরই ভাগ্য সুপ্রসন্ন হবে। অনেকটা আকস্মিকভাবেই বিদেশে পড়ালেখার সুযোগ পাবেন কেউ কেউ। এ বছর কখনো কখনো স্বাস্থ্য কিছুটা ভোগাবে। দীর্ঘদিনের বন্ধুত্বের সম্পর্ক একসময় প্রেমে রূপ নিতে পারে। যারা এ বছর নতুন প্রেমে জড়াবেন তাদের অনেকেই শেষ পর্যন্ত সাফল্যের মুখ দেখবেন। প্রেমের ব্যাপারে সাফল্যের পাশাপাশি দুই-একটি ব্যর্থতা ও প্রতারণার ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা একদম উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। সৃজনশীল কর্মকাণ্ডের ক্ষেত্রে ইতিবাচক ঘটনা ঘটবে। তবে বছরের শেষার্ধে তাদের চরম মূল্য দিতে হতে পারে।

কর্কট [২২ জুন-২২ জুলাই
কর্কট রাশির শুভ সংখ্যা ২।
শুভ রং : হালকা সবুজ, সাদা ও কমলা।
শুভ রত্ন:  মুক্তা,  শুভ ধাতু :  শঙ্ক ।
কর্কট রাশির বৈশিষ্ট্য : কর্কট চন্দ্রগ্রহের জাতক। এটি জল রাশি এবং এর অর্থ কাঁকড়া। এ রাশির জাতক-জাতিকারা ঘরমুখী, সংবেদনশীল, আত্মকেন্দ্রিক ও খেয়ালি স্বভাবের হয়ে থাকে। এরা অতিরিক্ত কল্পনা ও আবেগপ্রবণ। এরা নিজের মনকে বেশি প্রাধান্য দেয়। আনন্দের নেশা এদের মধ্যে যেমন প্রবল হয়, তেমনি মাঝে মধ্যেই বিষণ্নও হয়ে ওঠে। অন্যের জন্য কিছু করলেও প্রতিদানে খুব একটা পায় না তারা। পরোপকারের প্রতি ঝোঁক রয়েছে, সবাইকে আপন করে নিতে চায়। এদের স্মৃতিশক্তি বেশ তীক্ষ।
নতুন বছর কেমন যাবে :  এ  বছরের শুরুতেই বিয়ে-শাদীর ঘটনা ঘটবে। এছাড়া প্রেমের ক্ষেত্রে চমকপ্রদ কিছু ঘটনা ঘটতে পারে। অন্যের প্ররোচনায় প্রেমিক-প্রেমিকার মধ্যে যাতে কোনোরকম ভুল বোঝাবুঝির সৃষ্টি না হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। বিদেশ যাত্রার ক্ষেত্রেও সাফল্যের ঘটনা ঘটবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে। পারিবারিক পরিমণ্ডলে এ বছর আপনাকে কুশলী হতে হবে। পরিবারের কেউ কেউ চাকরি ক্ষেত্রে আপনার আটকে থাকা পদোন্নতির ইতিবাচক সিদ্ধান্তের ব্যাপারে সরাসরি বা প্রত্যক্ষ ভূমিকা রাখতে সক্ষম হবে। বছরের বেশিরভাগ সময়ই আপনার বাড়ি মেহমানে মুখরিত থাকবে। বন্ধুত্বের সম্পর্ক প্রেমে রূপ নিতে পারে। যারা নতুন প্রেমে জড়িয়েছেন তাদের কারও কারও সম্পর্ক বিয়েতে গড়ানোর সম্ভাবনা আছে। ব্যবসা ক্ষেত্রে নতুন পরিকল্পনা বাস্তবায়ন সহজ হবে।

সিংহ  [২৩ জুলাই-২৩ আগস্ট]
সিংহ রাশির শুভ সংখ্যা ১। 
শুভ রং : হলুদ, সোনালি
শুভ রত্ন : চুন্নি ও প্রবাল,  শুভ ধাতু : তাম্র
সিংহ রাশির বৈশিষ্ট্য : এদের মধ্যে রাজকীয় ভাব বিদ্যমান। এদের আভিজাত্যের প্রতি মোহ থাকে। এরা উদার, দৃঢ়সংকল্প এবং নেতৃত্বশক্তির অধিকারী হয়। ঈষত্ গর্বিত, আগ্রহী এবং অন্যদের আকর্ষণ করানোর ক্ষমতা এদের প্রবল। বিশৃঙ্খলা একেবারেই ভালোবাসে না এরা। সবার জন্য নিজের স্নেহপ্রীতি, ভালোবাসা উজাড় করে দেয়। নিজের বিচার-বুদ্ধির ওপর তীব্র আস্থা থাকে, প্রচণ্ড আত্মবিশ্বাসী হয়। অনেক সময় প্রতিহিংসাপরায়ণ ও জেদের বশবর্তী হয়ে ট্র্যাজেডির শিকার হয়।
বছরটি কেমন যাবে : এ বছর প্রেমের বিয়েতে অভিভাবকের সম্মতি পাওয়া সহজ হবে। নববিবাহিত দম্পতির মধ্যে সৃষ্ট ভুল বোঝাবুঝির অবসান হবে। এ বছর অনেকেই প্রবাসী পাত্র-পাত্রীর সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হবেন। ব্যক্তিগত স্বার্থরক্ষার চেয়ে সমষ্টিগত স্বার্থরক্ষার প্রতি আপনার লক্ষ্য থাকবে। তাই সামাজিক পরিমণ্ডলে এ মাসের মধ্যেই আপনি প্রায় সবার কাছেই গ্রহণযোগ্য হয়ে উঠবেন। ব্যবসায়ীদের ভাগ্য এ বছর আকাশছোঁয়া। ব্যবসায়ে আটকে থাকা বকেয়া পাওনার ব্যাপারে এ বছর একটি গ্রহণযোগ্য সমাধান খুঁজে পাওয়া যাবে। শৌখিন দ্রব্যের ব্যবসায়ে সাফল্য আসতে পারে। এ ছাড়া সুতা, কাপড়, তৈরি পোশাক কিংবা যন্ত্রপাতির ব্যবসায়ে হাত দিলেও লাভবান হবেন। যারা ঠিকাদারি ব্যবসায়ের সঙ্গে জড়িত তাদের কেউ কেউ বছরের শুরুতে ভালো কাজের প্রস্তাব পাবেন। চাকরিজীবীদের জন্য বছরটি ভালোই যাবে। যারা নতুন চাকরিতে ঢুকেছেন তাদের কেউ কেউ বিদেশে প্রশিক্ষণের সুযোগ পাবেন। কখনো কখনো সহকর্মীর ভুলের দায়ভার আপনার উপরে চাপিয়ে দেওয়া হতে পারে। বছরের কোনো কোনো সময় বদলি সংক্রান্ত ঝামেলায় পড়ার সম্ভাবনাকে একেবারে নাকচ করে দেওয়া যাচ্ছে না। আবার কারও কারও ক্ষেত্রে সফলতার সর্বোচ্চ শিখরে পৌঁছানোর সম্ভাবনা রয়েছে। বছরের শুরুতেই শিক্ষা ক্ষেত্রে ভর্তি সংক্রান্ত জটিলতা মিটে যাবে।

কন্যা [২৪ আগস্ট-২৩ সেপ্টেম্বর]
কন্যা রাশির শুভ সংখ্যা ৫।
শুভ রং : ফিরোজা, চকলেট।
শুভ রত্ন :  পান্না শুভ ধাতু : রুপা।
কন্যা রাশির বৈশিষ্ট্য : কন্যা রাশি বুধ গ্রহের জাতক। কুমারী কন্যা পবিত্রতার প্রতীক, যার প্রসন্ন সরলতা মানুষের মনে আশ্বাস জাগায়। উচ্চাকাঙ্ক্ষা কন্যার চালিকাশক্তি। এ রাশির জাতক-জাতিকারা অত্যন্ত প্রশংসাপ্রিয় হয়। আত্মাভিমান প্রবল এদের। সমালোচনা এদের সহ্য হয় না। এরা ভ্রমণপ্রিয়। তবে ঘরে থাকলে প্রবাসের আনন্দের সন্ধান করে আবার প্রবাসে থাকলে গৃহ সুখের।
নতুন বছর কেমন যাবে :  সব মিলিয়ে বছরটি ভালো যাবে। আপনি লক্ষ্য করলে দেখবেন, বৈদেশিক বাণিজ্যের ক্ষেত্রে প্রত্যাশার চেয়ে বেশি সুযোগ হাতে আসবে। তবে সাবধানে এগোতে হবে। কারণ নিশ্চিত না হয়ে প্রবাস বা বিদেশ সফরে গেলে অনিশ্চয়তায় পড়তে পারেন। ভুগতে পারেন অর্থকষ্টে। এ বছর ব্যবসায়ে পাওনা টাকা সহজেই আদায় হবে। শিল্প সংস্থাপন কিংবা প্রকল্প বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় অর্থের জোগান পাওয়া সহজ হবে। ব্যাংক-ঋণ পেতেও তেমন কোনো সমস্যা হবে না। যারা গত বছর প্রেমের ব্যাপারে আশাহত হয়েছিলেন, এ বছর তাদের অনেকের জীবনে প্রেম আসবে নির্ভরতার প্রতীক হয়ে। ব্যবসায়িক পরিকল্পনা বাস্তবায়ন হবে বিপরীত লিঙ্গের সহযোগিতায়। লটারি কিংবা অন্য কোনো উপায়ে আকস্মিকভাবে অর্থপ্রাপ্তির সম্ভাবনা আছে। শিক্ষাক্ষেত্রে দারুন উন্নতি হবে এ বছর। বিলাসদ্রব্যের ব্যবসায় উন্নতি হবে। অন্যদিকে  কারও কারও সম্পর্ক পারিবারিক সম্মতিতে শেষ পর্যন্ত বিয়েতে গড়াবে। তাই পারিবারিক সিদ্ধান্তকে প্রাধান্য দিলে লাভবান হবেন।

তুলা [২৪ সেপ্টেম্বর-২৩ অক্টোবর]
তুলা রাশির শুভ সংখ্যা ৫ ও ৬।
শুভ রং : ফিরোজা, আকাশি ও সাদা।
শুভ রত্ন :  হীরা-পান্না  শুভ ধাতু :  স্টিল।
তুলা রাশির বৈশিষ্ট্য : এ রাশির জাতক-জাতিকার বিচার-বিশ্লেষণ ও লোকচরিত্র বোঝার ক্ষমতা প্রবল। এরা ভারসাম্যপূর্ণ, সুহূদয় ও বুদ্ধিদীপ্ত হয়ে থাকে। জাতকের আনন্দের নেশা ও বিপরীত লিঙ্গের প্রতি আকর্ষণ প্রবল। ভোগবিলাসে এদের সুরুচির প্রকাশ ঘটে থাকে। ন্যায়সঙ্গত মতপ্রকাশে পশ্চাত্পদ হয় না।
নতুন বছর কেমন যাবে : বছরের শুরুতেই আপনার বেশির ভাগ সময় পরিবারের জন্য ব্যয় করতে হবে। অন্যদিকে শুরু নয়, শেষার্ধে আপনার জন্য প্রত্যাশা অপেক্ষা করছে। তার মানে এই নয় যে, বছরের শুরুটা খারাপ যাবে। ভালো যাবে তবে তুলনামূলক ম্লান। বছরের দ্বিতীয়ার্ধে বিপরীত লিঙ্গের কারও কারও কাছ থেকে চাকরি ও ব্যবসা উভয় ক্ষেত্রেই প্রত্যক্ষ সহযোগিতা পাবেন। প্রত্যক্ষ না পেলেও পরোক্ষ সহযোগিতা নিশ্চিত। অন্যের পাওনা পরিশোধ করলে পিঠের বোঝা নেমে যাবে। ঠিক তেমনি পাওনা টাকা আদায়ের ব্যাপারে বিশেষ সাফল্য অর্জিত হবে। এমন কিছু পাওনা এ বছর আদায় করতে সক্ষম হবেন, যা ছিল প্রায় দুঃসাধ্য। বিশেষ করে ব্যবসায়ীরা এ বছর সাফল্যের মুখ দেখবেন। অন্যদিকে রাজনীতিবিদরা বছরের শুরুতেই এগিয়ে যাবেন। বিশেষ করে জনকল্যাণ ও সেবামূলক কাজকর্ম বেড়ে যাবে। সারা বছরই রোমান্স ও বিনোদন শুভ রয়েছে। দুই-একটি ক্ষেত্রে নিকটাত্মীয় কিংবা ঘনিষ্ঠ বন্ধুর বৈরিতার কারণে পুরনো প্রেমের সম্পর্কে ফাটল ধরবে। সারা বছরই যোগাযোগ ক্ষেত্রে সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে। এড়িয়ে চলতে হবে নৌ ও রেলপথ।

বৃশ্চিক [২৪ অক্টোবর-২২ নভেম্বর]
বৃশ্চিক রাশির শুভ সংখ্যা ১,২,৩,৯।
শুভ রং : নীল, ঘিয়ে, চকলেট।
শুভ রত্ন :  প্রবাল ও চুন্নি,  শুভ ধাতু : তামা।
বৃশ্চিক রাশির বৈশিষ্ট্য : রাশিচক্রের অষ্টম রাশি বৃশ্চিক, শাসকগ্রহ মঙ্গল। এ রাশির জাতক-জাতিকারা কাজপাগল, ইচ্ছাশক্তি প্রবল, প্রয়োজনে বিদ্যুত্গতিতে সিদ্ধান্ত নিতে পারে। অন্যের দোষ ধরতে পারদর্শী, পান থেকে চুন খসলে তিক্ত কথা শুনিয়ে দিতে পশ্চাত্পদ হয় না। এরা স্বাধীনপ্রিয় ও দূরদর্শী, বহু আগে থেকেই পরিকল্পনা করে একটু একটু করে লক্ষ্যে পৌঁছায়। প্রতিশোধ নেওয়ার ইচ্ছা দীর্ঘদিন মনের মধ্যে পুষে রাখতে পারে।
নতুন বছর কেমন যাবে : বছরের প্রথমভাগ (জানুয়ারি-এপ্রিল) বুধ ও নেপচুনের যৌথ প্রভাবে আপনি সর্বদাই একটি নিরাপদ স্থানে অবস্থান করতে যাচ্ছেন। এ সময়ে আপনি আপনার পরিবারকেই বেশি সময় দিতে চাইবেন এবং দিতে পারবেন। নেপচুন আপনাকে বেশ আরামেই কাটাতে সাহায্য করতে পারে। তবে আগের কোনো ঘটনা আপনার সামনে চলে আসতে পারে। সেটা আপনাকে আঘাত করলে কিছুটা ক্ষতিও হয়ে যেতে পারে। অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মধ্যে যারা বকেয়া পাওনার ব্যাপারে উদ্বিগ্ন ছিলেন তাদের অনেকেই বছরের প্রথমার্ধের মধ্যেই পাওনা বুঝে পাবেন। শেয়ার ব্যবসায় বিনিয়োগ করেও লাভবান হবেন কেউ কেউ। বেকারদের অনেকেই এ বছর বিদেশ যাত্রার প্রচেষ্টায় সফল হবেন। এক্ষেত্রে কেউ কেউ প্রভাবশালীদের কাছ থেকে সার্বিক সহযোগিতা পাবেন। রাজনৈতিক পরিমণ্ডলে এ বছর নাটকীয় পরিবর্তনের সম্ভাবনা আছে। মুরব্বিদের সঙ্গে কখনো কখনো মতবিরোধ দেখা দিলেও তা সীমা অতিক্রম করবে না। প্রবাসী কারও সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে উঠলে তা ইতিবাচক পরিণতির দিকে এগোবে। সামাজিক মর্যাদা বৃদ্ধি পাওয়ার সম্ভাবনা আছে। অর্থবিত্তের নতুন দুয়ার উন্মোচন হবে। আটকে থাকা পদোন্নতি বছরের শুরুতেই বিবেচনার জন্য উপস্থাপন করা হতে পারে। বছরটি আপনি উত্সর্গ করতে যাচ্ছেন আপনার পরিবার আর আপনার একান্ত কিছু ভালো লাগার উদ্দেশ্যে। এ ছাড়া এককথায় বলতে গেলে ২০১৪ সালটি হবে আপনার ভাগ্যের অনুকূলে। এখান থেকেই শুরু হতে পারে নতুন করে পথচলা। এগিয়ে যেতে পারবেন লক্ষ্যে।

ধনু [২৩ নভেম্বর-২১ ডিসেম্বর]
ধনু রাশির শুভ সংখ্যা ৩ ও ৯।
শুভ রং : আকাশি ও বেগুনি।
শুভ রত্ন :  পোখারাজ, ধাতু :  ব্রহ্মযষ্টির মূল
ধনু রাশির বৈশিষ্ট্য : ধনু রাশি বৃহস্পতি গ্রহের জাতক। এরা সত্যবাদী, আবেগী, প্রখর আত্মসম্মানবোধ সম্পন্ন এবং অন্যায় সহ্য করে না। অন্যরা সহজেই এদের ভুল বোঝে। এরা খুঁটিনাটি বিষয়ের প্রতি বেশি লক্ষ্য করে। অপ্রিয় সত্য কথা বলার জন্য শত্রু সৃষ্টি হয়। লক্ষ্য অর্জনে নিরলসভাবে কাজে ব্রতী হয়। সমাজসেবায় সুনাম লাভ করে থাকে। গুরু, শিক্ষক ও উপদেষ্টার ভাব প্রবল এদের মধ্যে।
নতুন বছর কেমন যাবে :  এ বছর বেশির ভাগ প্রেমের সম্পর্কই সাফল্যের মুখ দেখবে। প্রেমিক-প্রেমিকার মধ্যে দীর্ঘদিনের ভুল বোঝাবুঝির অবসান হবে। কোনো কোনো ক্ষেত্রে ভেঙে যাওয়া সম্পর্ক জোড়া লাগবে। এ বছর পরকীয়ার অপবাদ ঘুচবে। প্রেম করে বিয়ে করলেও দাম্পত্য জীবনে সতর্ক থাকতে হবে। তবে বিয়ের ব্যাপারে বয়সের পার্থক্যটাকে প্রাধান্য দিতে হবে। অর্থাত্ স্বামী-স্ত্রীর বয়সের পার্থক্য খুব বেশি হয় না। অন্যদিকে এই রাশির জাতক-জাতিকাদের  দীর্ঘদিনের প্রেম বিবাহে রূপ নেবে। ব্যক্তিত্বসম্পন্ন লোকের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা বাড়বে। অহেতুক চিন্তা থেকে পরিত্রাণ পাবেন। এ বছর সাহিত্য, সংগীত, নৃত্যকলা কিংবা অভিনয়ের মাধ্যমে প্রশংসার পাশাপাশি প্রচুর অর্থ উপার্জনেও সক্ষম হবেন। এ সুবাদে বিদেশ যাত্রারও সুযোগ  আসবে। তবে সব সুযোগ কাজে লাগানো ঠিক হবে না। বিদেশ যাত্রার জন্য এ বছরই প্রস্তুতি নেওয়া উত্তম সময় এ জাতক-জাতিকার। কোনো কোনো ক্ষেত্রে আপনার বিদেশি বন্ধু এ ব্যাপারে কার্যকর সহযোগিতা প্রদান করবে। এ ছাড়া শেয়ার কিংবা অন্য কোনো ফটকা ব্যবসা থেকেও মুনাফা অর্জিত হবে। পরীক্ষা, প্রেম ও রোমান্সের ক্ষেত্রে বছরটি অত্যন্ত শুভ।

মকর [২২ ডিসেম্বর-২০ জানুয়ারী]
মকর রাশির শুভ সংখ্যা ৮।
শুভ রং :  নীল, চকোলেট, ক্রিম, সবুজ। 
শুভ রত্ন : ক্যাটস আই, শুভ ধাতু :  লৌহ
মকর রাশির বৈশিষ্ট্য : এরা শনিগ্রহের জাতক। ধৈর্য, শ্রম ও কষ্ট সহিষ্ণুতার প্রতীক মকর জাতক-জাতিকা। এদের অন্তর্দৃষ্টি তীক্ষ। প্রায় সর্ব ক্ষেত্রেই এরা যোগ্য দেখাতে পারে। কর্তব্য, প্রেম ও সামাজিকতার ব্যাপারে সাধারণ থেকে একটু স্বতন্ত্র হয়। দায়িত্বজ্ঞান, সময়জ্ঞান ও নিয়মনিষ্ঠা প্রবল হয়ে থাকে।
নতুন বছর কেমন যাবে :  গত বছরের অসমাপ্ত ব্যবসায়িক কর্মকাণ্ড-গুলোও এ বছরের শুরুতেই ইতি টানবে। বছরটি শিক্ষার্থীদের জন্য বিশেষ সাফল্যের বছর হিসেবে চিহ্নিত হয়ে থাকতে পারে। কেউ কেউ ছাত্র রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়ার কারণে পড়ালেখায় অমনোযোগী হওয়া সত্ত্বেও পরীক্ষায় ভালো ফলাফল অর্জন করবেন। এ বছর কেউ কেউ কাঙ্ক্ষিত বিষয় নিয়ে পড়ালেখার সুযোগ পাবেন। অদূরদর্শী দৃষ্টিভঙ্গির কারণে আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়তে পারেন। পরিবারের প্রতি মনোযোগ বাড়াতে হবে। ব্যবসার নতুন দুয়ার খুলে যাবে এ বছর। এককথায় ব্যবসায়ীরা থাকবেন তুঙ্গে। তবে বছরের শেষে কিছুটা ভাটা পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। বৈদেশিক বাণিজ্যে আগ্রহীরা গত বছর যে জটিলতা অতিক্রম করেছিলেন, এ বছরের শুরুতে তার রেশ থাকলেও প্রথম তিন মাস অতিক্রান্ত হওয়ার পর সুদিন দেখতে পাবেন। সময়োচিত সিদ্ধান্ত গ্রহণের ফলে এ বছর একাধিক পারিবারিক কলহের সুষ্ঠু নিষ্পত্তি ঘটার সম্ভাবনা আছে। অন্যদিকে পুরনো ঝামেলাও মিটে যেতে পারে।

 কুম্ভ [২১ জানুয়ারী-১৮ ফেব্রুয়ারী
কুম্ভ রাশির শুভ সংখ্যা : ১, ৩ ও ৯।
শুভ রং : নীল, গাঢ় সবুজ ও বেগুনি।
শুভ রত্ন :  নীলা,  শুভ ধাতু :  সিসা-স্টিল।
কুম্ভ রাশির বৈশিষ্ট্য : এরা নিঃস্বার্থ ও পবিত্র হয়ে থাকে। এদের আত্মবিশ্বাস প্রবল হয়। এরা নিষ্ঠাবান, মানবপ্রেমী, সংবেদনশীল, আত্মাভিমানী ও আবদারপ্রিয়। জনপ্রিয় হলেও ঘনিষ্ঠ বন্ধুর সংখ্যা কম হয়ে থাকে। ভোগ ও ত্যাগ দুই ব্যাপারেই বিশেষভাবে পারদর্শী। অত্যন্ত আরামপ্রিয় ও কিছুটা অবাস্তববাদিতার জন্য সাফল্যে বাধা আসে। ভাবপ্রবণতাকে প্রশ্রয় দিলে এদের জীবন নিরাশপূর্ণ হয়ে উঠতে পারে। 
নতুন বছর কেমন যাবে :  নগদ টাকার অভাবে গত বছর যেসব ব্যবসায়িক কার্যক্রম বন্ধ করে দিতে হয়েছিল এ বছর সেগুলোতে আবার হাত দিতে পারবেন। বছরের কোনো কোনো সময় অন্যের দেওয়া ভুল তথ্য প্রেমের ব্যাপারে জটিলতার সৃষ্টি করতে পারে। কোনো কোনো ক্ষেত্রে ভেঙে যাওয়া সম্পর্ক জোড়া লাগতে পারে। দীর্ঘদিনের পুরনো কোনো পারিবারিক সমস্যার সমাধান হবে। পুরাতন প্রেম ভেঙে যেতে পারে। নতুন নতুন কাজ হাতে আসবে। নতুন কোনো বন্ধু উপকারে আসতে পারে। ভয় ও সঙ্কোচ ধীরে ধীরে কেটে যাবে। এ বছর প্রেমের বিয়ের ব্যাপারে অভিভাবকদের কেউ কেউ প্রথমে অমত করলেও শেষ পর্যন্ত বিষয়টি তারা মেনে নেবে। ছাত্রছাত্রীরা এ বছর বিভিন্ন পরীক্ষায় বিশেষ কৃতিত্বের স্বাক্ষর রাখতে সক্ষম হবে। এ বছর একাধিক লটারি কিংবা অন্য কোনো উপায়ে আকস্মিকভাবে অর্থপ্রাপ্তির সম্ভাবনা আছে। এ বছর প্রিয়জনের কাছ থেকে মানসিক আঘাত পাওয়ার ক্ষীণ সম্ভাবনা আছে।

মীন [১৯ ফেব্রুয়ারি-২০ মার্চ]
মীন রাশির শুভ সংখ্যা : ৪ ও ৭।  
শুভ রং : বেগুনি, শুভ রত্ন : রক্তমুখী নীলা,
শুভ ধাতু :  রুপা-সোনা।
মীন রাশির বৈশিষ্ট্য : রাশি বলয়ের সর্বশেষ রাশি মীন, গ্রহ বৃহস্পতি। এই রাশির জাতক-জাতিকারা তীব্র কৌতূহলী এবং জীবনকে দেখে বিশেষ দৃষ্টিকোণ থেকে। সহানুভূতি ও ক্ষমা এদের বিশেষ গুণ। প্রেম ও ধর্মের প্রতি বিশেষ আগ্রহ থাকে। মানুষের মন ও চিন্তাকে সঠিকভাবে  বুঝতে পারে।
বছর কেমন যাবে : ২০১৪ সালের প্রথম দিকে আপনার মন শান্ত থাকবে। কিন্তু এর জন্য আপনার কিছু সময়ের প্রয়োজন হতে পারে। আপনি কোনোভাবেই চাইবেন না যে আপনার ব্যক্তিগত কাজের মধ্যে কেউ ঢুকে পড়ুক। যতটা সম্ভব নীরব থাকুন। আপনার মাথা থেকে কিছু না কিছু বেরিয়ে আসতে পারে। মার্চের দিকে আপনার কাছে সবকিছুই নতুন এবং আনন্দদায়ক মনে হতে পারে। আপনি কোনো একজন বিখ্যাত ব্যক্তির মতো হতে চাইবেন। জীবনটা তখন দ্রুতগতির নৌকার মতো চলতে চাইতে পারে। তবে দাঁড়টা টেনে রাখার মানসিকতা বজায় রাখুন। নচেত্ ভিন্নপথে চলে যেতে পারেন। ভিন্ন কোনো স্রোতে। জুন-জুলাইয়ের দিকে আপনি কোনো রহস্যের উদ্ঘাটন করে ফেলতে পারেন। অথবা দূরের কোনো ভবিষ্যত্ স্পস্ট দেখতে পারেন। জুলাইয়ের পরে আপনি বেশ কিছু দুঃখ-যন্ত্রণার মধ্যে পড়ে যেতে পারেন। রাজনীতিতে এমন কিছু কর্মদক্ষতা আপনি প্রদর্শন করতে পারবেন, যার মাধ্যমে দল তথা বৃহত্তর  জনগোষ্ঠী উপকৃত হবে। এ বছর বেশির ভাগ আইনি লড়াইয়ের ফলাফল আপনার অনুকূলে যাবে। যা বছরের প্রথমেই হতে পারে।
শামসুল হক রাসেল
সুত্র: বিডি প্রতিদিন

comments (0) / Read More

/ Labels: , ,

কেমন যাবে আপনার ২০১৪ সাল?


ভাগ্যে বিশ্বাস আছে আপনার? জেনে নিতে চান কেমন যাবে ২০১৪ সাল? সাফল্য নাকি ব্যর্থতা, আনন্দ নাকি হতাশা?

রাশিচক্র নিয়ে একধরনের বিভ্রান্তি আছে আমাদের। মিলে গেলে ভালো, না মিললে মহা সংশয়বাদী। কিন্তু তারপরও খুঁজি আঁতিপাতি একটা নিশ্চিত জীবনের উত্তরে। আমরা বিশ্বাস করি বা না করি, নিজেদের চারিত্রিক বৈশিষ্ট্যও জেনে নিতে চাই। নিজেদের মন্দ দিকগুলো বিদায় করে হয়ে উঠতে চাই স্বচ্ছ, স্পষ্ট এবং সচল। ঝঞ্ঝাবিক্ষুব্ধ রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে নিশ্চিত হতে চাই সুন্দর আগামীর প্রত্যাশায়। পাঠক, আপনাদের ইচ্ছেপূরণের জন্য আমরা আপনাদের দ্বারপ্রান্তে হাজির।

একটি সুন্দর আগামী আমাদের দুর্গম অভিযাত্রাকে সহনীয় করুক। আমরা আরও সুন্দর সময়কে ধারণ করতে চাই, পরিতৃপ্ত না হই, নিশ্চিত হতে চাই আগামী বছরগুলোর সূত্রে। তাই হাতে তুলে নিই কি করে মূর্ত করবো জীবনের বহুবিধ ইচ্ছেগুলোকে। উপভোগ করবো, ভালোবাসবো পূর্ণিমায়, অমাবশ্যায়। পাঠক পড়ুন, ভালো লাগলে জানান আমাদের।

মেষ (Aries)
জেনে নিতে চান কেমন যাবে ২০১৪ সাল?

শুভ রং- লাল, গোলাপি ও সাদা
শুভ রত্ন- এমারল্ড, কার্নেলিয়ান, জেসপার এবং ব্লু-সফির
শুভদিন- মঙ্গলবার
শুভসংখ্যা- ৮
মানানসই রাশি- সিংহ এবং ধনু

পাশ্চাত্যমতে ২১ মার্চ থেকে ১৯ এপ্রিল তারিখের মধ্যে জন্মগৃহণ করায় আপনি মেষ রাশির জাতক বা জাতিকা। আপনার মূল প্রভাব বিস্তারকারী গ্রহ- মঙ্গল। আপনি কর্মকাণ্ড, শারীরিক শক্তি, উদ্যোগ আর আগাসী মনোভাবের প্রতীক। আপনার মধ্যে জন্ম নেয় তিজিভাব এবং প্রচণ্ড আত্মবিশ্বাস। সাধারণত আপনি উদ্যোগী, প্রাণবন্ত কিন্তু কাজকর্মে অস্থির ও আগাসী মনোভাব পোষণ করে থাকেন।

আপনার জীবনে প্রেম-ভালোবাসা এবং স্বাস্থ্যগত দিক থেকে একটি পরিপূর্ণতার বছর হতে যাচ্ছে ২০১৪ সাল। পুরো বছরটিকে আপনি দুটো ভাগে ভাগ করে নিতে পারেন। প্রথম ভাগে আপনার পেশাগত জীবনের গতি কিছুটা ধীর হয়ে আসতে পারে। অল্প সময়ের মধ্যে অনেক কঠিন কঠিন কাজের চাপ আপনার জীবনকে অভাবনীয় বিরক্তির মুখে ফেলতে পারে। কি করবেন? প্রথমেই মাথাটা ঠান্ডা রাখুন। প্রয়োজন মতো ঘুমিয়ে নিন। নিজের জীবনীশক্তির উপর বিশ্বাস রাখুন। সবসময় ইতিবাচক মনোভাব বজায় রাখুন। আত্মবিশ্বাস বজায় রাখুন। গঠনমূলক কাজে আত্মনিয়োগ করুন। পুরুপুরি নিশ্চিত না হয়ে অযথা খরচ না করাই ভালো। এই বছরটি আপনার স্বাস্থ্যগত দিক থেকে অনেক ফলপ্রসূ। বড় কোনো অসুস্থতার সম্ভাবনা নেই। পেশাগত কাজে দেশের ভেতরে কিংবা বাইরে ভ্রমণের সুযোগ আসতে পারে। ছাত্র-ছাত্রীদের কারো কারো বৃত্তি পাবার সম্ভাবনা রয়েছে। প্রেমের জন্য বছরটি অত্যন্ত ফলপ্রসূ একটা বছর হতে যাচ্ছে।

বৃষ (Taurus)
জেনে নিতে চান কেমন যাবে ২০১৪ সাল?
শুভ রং- পিঙ্ক, সবুজ, আকাশি, কমলা ও সাদা
শুভ রত্ন- এমারল্ড
শুভদিন- শুক্রবার
শুভসংখ্যা- ৫
মানানসই রাশি- কন্যা, মকর, মীন এবং কর্কট

পাশ্চত্যমতে ২০ এপ্রিল থেকে ২০ মে তারিখের মধ্যে জন্মগৃহণ করায় আপনি বৃষ রাশির অধীন। আপনার উপর মূল প্রভাব বিস্তারকারী গ্রহ শুক্র। এর প্রভাবে আপনি পরিণত হয়েছেন একজন ধীরস্থির, বাস্তববাদী, পরিশ্রমী, সৃজনশীল এবং ভ্রমণপিপাসু রূপে। এর পাশাপাশি আপনি কিছুটা রক্ষণাত্মক স্বভাবের। পেশাগত ক্ষেত্রে আপনি সহসাই ধৈর্য ধারণ করতে পারেন।

একটি পরিবর্তনের বছর হতে যাচ্ছে ২০১৪ সাল। জীবনের পরতে পরতে বাঁক নিতে পারে আপনার চিন্তা, কিছু ব্যক্তিগত অভ্যাস এবং আপনার রোমান্স, যা বদলে দিতে পারে আপনার ঘটনাপ্রবাহ এবং সেই সাথে পেশাগত জীবনের পরিকল্পনা। আপনি কিছু কারিগরি সমস্যার মধ্যে পড়ে যেতে পারেন। ব্যবসা বাণিজ্যে নতুন কোনো কনট্র্যাক্ট পাবার সুযোগ পেয়ে যেতে পারেন। কিন্তু এ সময়ে আপনার কিছুটা স্বাস্থ্যহানিও হতে পারে। নিজের কার্যপ্রণালিকে ভালো করে সাজিয়ে নিন। যথাযথভাবে গুছিয়ে নিন। কাজের তুলনায় চিন্তায়র দিকে মনোনিবেশ করুন। প্রেম-ভালোবাসা আপনার জীবনে এক নতুন মাত্রা এনে দিতে পারে। সারা বছর আপনাকে অনেক বেশি সচেতন, বিচক্ষণ আর বাস্তবিকতার নিরিখে চলতে হবে।

মিথুন (Gemini )
জেনে নিতে চান কেমন যাবে ২০১৪ সাল?
শুভ রং- ধুসর, হালকা সবুজ, ক্রিম ও লাল
শুভ রত্ন- এমারল্ড
শুভদিন- বুধবার
শুভসংখ্যা- ৫
মানানসই রাশি- বৃশ্চিক, মকর, তুলা এবং কুম্ভ

পাশ্চাত্যমতে ২১ মে  থেকে ২০ জুন তারিখের মধ্যে জন্ম নেওয়ায় আপনি মিথুন রাশির জাতক কিংবা জাতিকা। আপনার মূল প্রভাব বিস্তারকারী গ্রহ - বুধ। উপলব্ধি, যোগাযোগ, যুক্তিবাদী  চিন্তা, গতিময়তা এবং কল্পনা আপনার বৈশিষ্ট্য। আপনার আকাঙ্খা অনেক বেশি আর তাই আপনি অনেক বেশি স্পর্শকাতর স্বভাবের। প্রত্যেক কাজেই আপনি আপনার নিজস্ব বুদ্ধিমত্তাকে কাজে লাগাতে চান।

২০১৪ সার আপনার মনটা বেশ নরম থাকবে। বছরটি আপনার প্রতি বেশ সুপ্রসন্ন হতে যাচ্ছে। ধনী হবার সম্ভাবনাও খানিকটা রয়েছে। কোনো প্রকার বাধা ছাড়াই নদীর স্রোতের মতো জীবন চলতে থাকবে। যারা সাহিত্যকর্ম কিংবা সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডের সাথে জড়িত তারা এ বছর এসব ক্ষেত্রে তাদের অবদানের জন্য বিশেস সম্মাননা পেতে পারেন। কারো কারো বিদেশে যাবার সম্ভাববনা উঁকি দিতে পারে। ছাত্র-ছাত্রীদের অনেকেই এ বছর বিদেশে পড়াশুনার সুযোগ পেয়ে যেতে পারেন। দীর্ঘদিনের প্রেমের সম্পর্ক এ বছর বিয়েতে পরিণত হতে পারে। তবে এ বছরে যেকোনো মামলা-মোকদ্দমায় জড়ানো থেকে বিরত থাকুন।

কর্কট (Cancer)
জেনে নিতে চান কেমন যাবে ২০১৪ সাল?
শুভ রং - হালকা সবুজ, সাদা ও কমলা
শুভ রত্ন- জড, জেসপার, পোখরাজ এবং এমারল্ড
শুভদিন - বুধবার এবং শুক্রবার
শুভসংখ্যা- ৬
মানানসই রাশি- বৃশ্চিক, মীন, বৃষ এবং কন্যা

পাশ্চাত্যমতে ২১ জুন থেকে ২২ জুলাই তারিখের মধ্যে জন্মগ্রহণ করায় আপনি কর্কট রাশির অধীন। আপনার উপর মূল প্রভাব বিস্তারকারী গ্রহ- চাঁদ। এর প্রভাবে আপনি আবেগ, স্বকীয়তা, নিয়মানুবর্তিতা, শক্তি ও চঞ্চলাতার ব্যক্তিত্ব লাভ করেছেন। আপনার যেকোন কার্যপ্রণালি অনেক পরিকল্পিত। সৃজনশীল এবং মানবতাবাদী কাজে আপনার আগ্রহ বেশ লক্ষণীয়।

বছরের প্রথম থেকেই আপনি এমন একটা অজানা বিষয়ের পিছনে ছুটে বেড়াবেন যা আপনার মনকে একপ্রকার অশান্তির মধ্যে রাখতে পারে। মনকে শান্ত রাখুন। কাজের প্রতি অনেক মনযোগী হয়ে উঠতে পারেন। চাকরিজীবীদের কেউ কেউ খুব বড় কোনো পদ লাভ করতে পারেন। বেকারদের কেউ কেউ নতুন কোনো চাকরিতে যোগদান করতে পারেন। সৃজশীল কাজের জন্য সম্মাননা পেতে পারেন। তবে এ সময় কিছুটা স্বাস্থ্যহানিও হতে পারে। আপনার আত্মবিশ্বাস বেড়ে যেতে পারে। অনেক আনন্দের মধ্যে থাকতে পারেন আপনি। বছরের শেষের সময়টাতে আপনার অনেক সঙ্গী জুটতে পারে। বন্ধুদের সাথে কোথাও আনন্দভ্রমণেও চলে যেতে পারেন।

সিংহ (Leo)
জেনে নিতে চান কেমন যাবে ২০১৪ সাল?
শুভ রং - হলুদ ও সোনালি
শুভ রত্ন - পোখরাজ, অ্যাম্বার, মুনস্টোন, সুজিলাইট এবং হিরা
শুভদিন- রবিবার ও মঙ্গলবার
শুভসংখ্যা- ১
মামানসই রাশি- মেষ এবং ধনু

পাশ্চাত্যমতে ২৩ জুলাই থেকে ২২ আগস্ট তারিখের মধ্যে জন্মগ্রহণ করায় আপনি সিংহ রাশির অধীন। আপনার উপর মূল প্রভাব বিস্তারকারী নক্ষত্র- সূর্য। এর প্রভাবে আপনি পরিণত হয়েছেন একজন সৎ, বিবেকবান এবং অদম্য সাহসী ব্যক্তিত্বে। সেই সাথে আপনার রয়েছে বিরপীত লিঙ্গের প্রতি দুর্নিবার আকর্ষণ। আপনি কিছুটা গর্বিত, আত্মঅহংকারী এবং আত্মকেন্দ্রিক। সৃজনশীল পেশাতেও আপনি বেশ সুনাম অর্জন করে থাকেন।

২০১৪ সালে আপনি বড় বড় বিষয় নিয়ে এমনভাবে মেতে উঠতে পারেন যে ছোট ছোট বিষয় আপনার কাছে গুরুত্বহীন হয়ে পড়বে। এতে আপনি অভাবনীয় সমস্যার মধ্যে পড়ে যেতে পারেন। নিজেকে কোনো দল কিংবা কোনো সংগঠনের হয়ে গঠনমূলক কোনো কাজে নিয়োজিত রাখুন। শরীর ও মন দুটোকেই বেশ প্রফুল্ল রাখতে হতে পারে। এতে আপনার আত্মবিশ্বাস বেড়ে যেতে পারে। আপনি স্নায়ুবিক দুর্বলতার শিকার হতে পারেন। বৃহত্তর কাজের প্রয়োজনে আপনার লক্ষ্যটাকে যে করেই হোক স্থির রাখতে হবে। পার্টনার নির্বাচনে বিশেস সতর্কতা অবলম্বন করুন। এতে ভুল হলে আপনার অনেক গুরুত্বপূর্ণ কাজ ভণ্ডুল হয়ে যেতে পারে।

কন্যা (Virgo)

শুভ রং - ফিরোজা, চকলেট ও সবুজ
শুভ রত্ন - কার্নেলিয়ান, জেড, জেসপার এবং ব্লু-সফির
শুভদিন - বুধবার এবং শুক্রবার
শুভসংখ্যা - ২, ৩, ৫, এবং ৬
মানানসই রাশি - বৃশ্চিক, মকর, মীন এবং কর্কট

পাশ্চাত্যমতে ২৩ আগস্ট থেকে ২২ সেপ্টেম্বর তারিখের মধ্যে জন্মগ্রহণ করায় আপনি কন্যা রাশির অধীনস্থ। আপনার উপর মূল প্রভাব বিস্তারকারী গ্রহ - বুধ। এর প্রভাবে আপনি পরিণত হন যুক্তিবাদী, স্মার্ট, সৃজনশীল, শৃঙ্খলাপূর্ণ ও পরিচ্ছন্ন ব্যক্তিত্বে। আপনি স্বভাবই একজন বিশ্বস্ত, পরিম্রমী এবং উচ্চাভিলাষী। রক্ষণশীল এবং খুঁতখুঁতে মনোভাব আপনার প্রত্যেকটি কাজকেই বিশেষ উৎকর্ষ দান করে থাকে।

২০১৪ সাল কন্যা রাশির জাতক-জাতিকাদের জীবনে উদ্ভাবনী শক্তির কিছু চাঞ্চল্যকর উপহার নিয়ে হাজির হতে যাচ্ছে। বছরটি আপনার জন্য যত না পারিবারিক সম্পর্কের, তার চেয়ে অনেক বেশি হবে ব্যবসায়িক পরিমণ্ডলের। এর ফলে আপনি আপনার পেশগত কাজে বেশিমাত্রায় দায়িত্বশীল হয়ে উঠতে পারেন। টাকা পয়সার ক্ষেত্রে এ রাশির জাতক-জাতিকারা বড় কোনো আশাপ্রদ পরিবর্তন দেখতে পাবেন না। ছোটোখাটো এসিডিটিজনিত সমস্যা ছাড়া বছরটি মোটোমুটি সুস্বাস্থ্যেই কেটে যেতে পারে। আপনি হয়ে উঠতে পারেন সমাজের একজন বিশেষ ব্যক্তি। বছরের শেস সময়গুলোতে ত্রিমুখি প্রেমঘটিত সমস্যায় পড়ে যেতে পারেন। অতএব, এ বছরটিতে নিজের অন্তর্নিহিত উদ্ভাবনী শক্তির দিকে বেশি মনোযোগী হয়ে উঠুন।

তুলা (Libra)

শুভ রং - মেজেন্ডা, হালকা লাল, মেরুন, ফিরোজা, আকাশি ও সাদা
শুভ রত্ন - রক্ত প্রবাল এবং গার্নেট
শুভদিন - শুক্রবার ও রবিবার
শুভসংখ্যা - ১ ও ৬
মানানসই রাশি - মিথুন, কুম্ভ এবং সিংহ

পাশ্চাত্যমতে ২৩ সেপ্টেম্বর থেকে ২২ অক্টোবর তারিখের মধ্যে জন্মগ্রহণ করায় আপনি তুলা রাশির জাতক-জাতিকা। আপনার উপর মূল প্রভাব বিস্তারকারী গ্রহ- শুক্র। এর প্রভাবে আপনি মণ্ডিত হন চিন্তক, বিবেকবান এবং প্রবল জীবনীশক্তির বৈশিষ্ট্যরূপে। এই রাশির জাতক-জাতিকাদের থাকে প্রখর উদ্ভাবনী শক্তি এবং তাই সৃজনশীল যেকোনো কাজে খুব সহজেই তাদের দক্ষতাকে কাজে লাগিয়ে খুব সহজেই পেশাগত জীবনে জনপ্রিয়তা লাভ করতে পারেন।

২০১৪ বছরের প্রথম দিকে পারিবারি নাটকীয়তায় ক্লান্ত হয়ে পড়তে পারেন। বাঁচতে চান? বন্ধুদের নিয়ে বাইরে আনন্দভ্রমণে বেরিয়ে পড়ুন। বছরের শেষভাগে নিজের চিন্তাশক্তির উপর ভর করে বেশিমাত্রায় চলতে চাইতে পারেন। আপনার প্রতিটি পদক্ষেপ সেইভাবে নিতে পারেন যেভাবে আপনি চান। তবে আপনার আত্মবিশ্বাস নিচের দিকে নেমে আসতে পারে। আপনি নিজেকে নিয়ে প্রায়ই অনিশ্চিত হয়ে পড়তে পারেন। প্রেমের জগতে নতুন কারো আবির্ভাব হতে পারে। অথবা পুরাতন প্রেম জোড়া লেগে যেতে পারে।

বৃশ্চিক (Scorpio)

শুভ রং - লাল, সবুজ, নীল ও চকলেটৱ
শুভ রত্ন - রক্ত প্রবাল গার্নেট
শুভদিন - শুক্রবার ও রবিবার
শুভসংখ্যা - ৯
মানানসই রাশি - কর্কট এবং মীন

পাশ্চাত্যমতে ২৩ অক্টোবর থেকে ২১ নভেম্বর তারিখের মধ্যে জন্মগ্রহণ করায় আপনি বৃশ্চিক রাশির জাতক-জাতিকা। আপনার উপর মূল প্রভাব বিস্তারকারী গ্রহ- প্লুটো। এর প্রভাবে আপনি মণ্ডিত হন প্রাণবন্ত, সৃজনশীল, সুদক্ষ এবং প্রবল ইচ্ছাশক্তিরূপে। টাকা পয়সার প্রতি আপনার প্রবল আকর্ষণ আপনাকে এর জন্য যেকোনো পদক্ষেপ নিতে বেশ আগ্রহী করে তোলে। আপনার এই স্বভাব আপনাকে সহসাই একজন ধনী ব্যক্তিতে রূপান্তরিত করে থাকে।

২০১৪ সাল। বছরটি আপনি উৎসর্গ করতে যাচ্ছেন আপনার পরিবার আর আপনার একান্ত কিছু ভাল লাগার উদ্দেশ্যে। বছরের প্রথমভাগে আপনি সর্বদাই একটি নিরাপদ স্থানে অবস্থান করতে যাচ্ছেন। এ সময়ে আপনি আপনার পরিবারকেই বেশি সময় দিতে চাইবেন এবং দিতে পারবেন। অর্থের দিকে বিশেষ মনোযোগ দিতে হতে পারে। ভবিষ্যতের যে কোনো বড় কিছুর আশায় অযথা খরচ করা থেকে নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করুন। স্বপ্নের দিকে মনোযোগ দিন। একটা গান শুনতে পাবেন যা আপনি কখনও ভাবেন যা আপনি কখনও ভাবেননি কিন্তু চেয়ে গেছেন মনের খুব অন্তরালে। পরিবারের সাথে নিজের সুখ-দুঃখ ভাগাভাগি করে নিন। ছাত্রছাত্রীদের কারো কারো বিদেশ ভ্রমণ করতে হতে পারে। স্বাস্থ্যের দিকে বিশেস মনোযোগ দিতে হতে পারে।

ধনু (Sagittarius)

শুভ রং - আকাশি ও বেগুনি
শুভ রত্ন - এমারল্ড, হিরা ও গার্নেট
শুভদিন - বৃহস্পতিবার
শুভসংখ্যা - ৩
মানানসই রাশি - মেষ, সিংহ, তুলা এবং কুম্ভ

পাশ্চাত্যমতে  ২২ নভেম্বর থেকে ২১ ডিসেম্বর তারিখের মধ্যে জন্মগ্রহণ করায় আপনি ধনু রাশির জাতক-জাতিকা। আপনার উপর মূল প্রভাব বিস্তারকারী গ্রহ - বৃহস্পতি। এর প্রভাবে আপনি দার্শনিক, আশাবাদী এবং কথায় ও কাজে সৎ হয়ে ওঠেন। পাশাপাশি আমুদে প্রকৃতির হয়ে থাকেন আপনি। চলাফেরায় এবং আত্মপ্রকাশে স্বাধীনতাকেই বেশি পছন্দ আপনার। আপনার রয়েছে প্রবল অধ্যাবসায়। এটি আপনার সবচেয়ে বড় অস্ত্র। এই গুণের কারণে আপনি যেকোনো কাজকেই নিজের আয়ত্তে আনতে পারেন। আপনার উপর প্রেম প্রায়শ্চই সুখকর হয় না। তবে আপনার অন্তর্নিহিত শক্তি ও স্নিগ্ধ মনোভাব খুব সহজেই বিপরীত লিঙ্গের দৃষ্টি আর্ষণ করতে পারে।

২০১৪ সালের এই বছরটি আপনার শুরু হতে যাচছে মনের সাথে যুদ্ধ করে। ইচ্ছা না থাকলেও কাছের কাউকে না কাউকে এমন কিছু বলে ফেলতে পারেন যার জন্য নিজেকে অপরাধী মনে হতে পারে। মনকে নিয়ন্ত্রণ করুন। বছরের প্রথমদিকে ভালোবাসার প্রতি আপনার আকর্ষণ বেড়ে যেতে পারে। আপনার স্বাস্থ্যহানিও হতে হতে পারে। নিজেকে বছরের মাঝামাঝি সময়ে অনেক সতেজ মনে হতে পারে। তাই যতটা সম্ভব কাজে ও আনন্দে সময়টা ব্যয় করুন। সম্ভব হলে বন্ধুদের বা পরিবারের সাথে বাইরে থেকে ঘুরে আসুন। বছরের শেষভাগে আপনার মনে হতে পারে, আপনাকে কেউ বুঝতে চাচ্ছে না। তবে এতে ভয় পাবার কোনো কারণ নেই। আর কিছু হোক বা না হোক বিগত বছরের বিনিয়োগের ফসল ঘরে আনতে পারবেন।

মকর (Capricon)

শুভ রং - সবুজ, নীল, ক্রিম ও চকলেট
শুভ রত্ন - এমারল্ড এবং রক্ত প্রবাল
শুভদিন - শনি ও বুধবার
শুভসংখ্যা - ৮
মানানসই রাশি - বৃষ, কন্যা, বৃশ্চিক এবং মীন

পাশ্চাত্যমতে ২২ ডিসেম্বর থেকে ১৯ জানুয়ারি তারিখের মধ্যে জন্মগ্রহণ করায় আপনি মকর রাশির জাতক- জাতিকা। আপনার উপর মূল প্রভাব বিস্তারকারী গ্রহ - শনি। ফলে আপনি হয়ে ওঠেন একজন নিয়মানুবর্তী এবং ধৈর্য্যশীল ব্যক্তি। অভিজ্ঞতা আপনার শিক্ষার মূল উৎস। কষ্টসহিষ্ণুতা আপনার মূল হাতিয়ার। আপনি উচ্চাকাঙ্ক্ষী, সুদক্ষ এবং কর্তৃত্বপরায়ণ। প্রতিযোগিতা করতে আপনি ভালোবাসেন। প্রেমে আপনার খুব একটা উদ্দীপনা কাজ না করলেও আপনার আগ্রহে কখনও কোনো ভাটা পড়ে না।

২০১৪ সালে নতুন কিছু করার চেষ্টা করুন, যা আপনি অনেক আগে করতে চেয়েছিলেন। তবে মনোযোগটা ধরে রাখতে চেষ্টা করুন। এতে সফলতা আপনার কাছে এসে নিজেই ধরা দিতে পারে। আপনার ভালোবাসা আপনার দুর্বল জায়গায় আঘাত হানতে পারে। কিছু ভুল বোজাবুঝির উদ্রেক হতে পারে। নতুন কাউকে ভালোবাসার ক্ষেত্রে ভেবে চিন্তে সিদ্ধান্ত নিতে হতে পারে। স্বপ্ন পূরণের দিকে মনযোগ দিতে পারেন। অর্থ উপার্জন বেড়ে যেতে পারে। পেশাগত ক্ষেত্রে নতুন সুযোগ আসতে পারে।

কুম্ভ (Aquarius)

শুভ রং - গাঢ় সবুজ, নীল ও বেগুনি
শুভ রত্ন - কার্নেলিয়ান এবং জেসপার
শুভদিন - শুক্রবার
শুভসংখ্যা - ৮ ও ৪
মানানসই রাশি - মিথুন এবং তুলা

পাশ্চাত্যমতে ২০ জানুয়ারি থেকে ১৮ ফেব্রুয়ারি তারিখের মধ্যে জন্মগ্রহণ করায় আপনি কুম্ভ রাশির জাতক-জাতিকা। আপনার উপর মূল প্রভাব বিস্তারকারী গ্রহ - ইউরেনাস। এর প্রভাবে আপনি হয়ে ওঠেন স্বাধীনতাপ্রিয়, প্রগতিশীল এবং মানবতাবাদী। আপনি ভয়ানক খারাপ পরিস্থিতির মধ্যে থেকেও নিয়মানুবর্তিতা এবং ধৈর্যকে বজায় রাখতে পারেন। আপনি বিশ্লেষক, বুদ্ধিমান, উদ্ভাবনী ক্ষমতাসম্পন্ন এবং খানিকটা একগুয়ে স্বভাবের। পাশাপাশি বন্ধুভাবাপন্ন এবং স্বনিয়ন্ত্রিত।

বেশ উত্তেজনা নিয়ে আপনি ২০১৪ সালটি শুরু করতে যাচ্ছেন। মনটা গতিশীল হয়ে উঠতে পারে বছরের প্রথম দিক থেকেই। আপনি যে পরিকল্পনা করেছেন তার বাইরে চলে যেতে পারেন। আপনি নতুন কোনো প্রেমের সম্পর্কে জোড়া লেগে যেতে পারেন। কারো কারো ভেঙে যাওয়া সম্পর্ক জোড়া লেগে যেতে পারে। ফলে আপনার মধ্যে কাব্যিক ভাব জেগে উঠতে পারে। তবে পেশাগত ক্ষেত্রে আপনি অস্থিরতায় ভুগতে পারেন। এক পা সামনে দিলে দুই পা পেছনে দিতে থাকবেন। অতএব, ভেবে চিন্তে সামনের দিকে অগ্রসর হওয়াটাই ভালো।

মীন (Pisces)

শুভ রং - সবুজ, ক্রিম, বেগুনি ও আকাশি
শুভদিন - বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার
শুভসংখ্যা - ৩ ও ৭
মানানসই রাশি - বৃষ, কন্যা, বৃশ্চিক এবং মীন

পশ্চাত্যমতে ১৯ ফেব্রুয়ারি থেকে ২০ মার্চ তারিখের মধ্যে জন্মগ্রহণ করায় আপনি মীন রাশির জাতক-জাতিকা। আপনার উপর মূল প্রভাব বিস্তারকারী গ্রহ - নেপচুন। আর তাই আপনি সাধারণত আদর্শবাদী, আধ্যাত্মিক, রোমান্টিক এবং কল্পনাবিলাসী চরিত্রের ধারক। পাশাপাশি খুবই বন্ধুভাবাপন্ন এবং গভীর মনের অধিকারী। সর্বদা আপনি একটি অর্থপূর্ণ জীবন চান। আর এতেই আপনি স্বাচ্ছন্দবোধ করে থাকেন আপনি।

২০১৪ সালের প্রথম দিকে আপনার মন অনেকটা শান্ত থাকবে। কিন্তু এর জন্য আপনার কিছু সময়ের প্রয়োজন হতে পারে। আপনি কোনোভাবেই চাইবেন না যে আপনার ব্যক্তিগত কাজের মধ্যে কেউ ঢুকে পড়ুক। যতটা সম্ভব নীরব থাকুন। আপনার মাথা থেকে কিছু না কিছু বেরিয়ে আসতে পারে। বছরের মাঝামাঝি সময়ে আপনি বেশ কিছু দুঃখ-যন্ত্রণার মধ্যে পড়ে যেতে পারেন। হতাশায় আপনার চিন্তা-চেতনাকে আচ্ছন্ন করে ফেলতে পারে। স্বাস্থ্যটাও কিছুটা ভেঙে যেতে পারে। একটা নির্দিষ্ট লক্ষ্যের দিকে একচিত্তে ধাবমান হন। কারো কারো ক্ষেত্রে বিদেশ ভ্রমণ হতে পারে।
সুত্র: কালের কন্ঠ

comments (0) / Read More

/ Labels: , ,

কাওসার আহমেদ চৌধুরীর চোখে কেমন যাবে আপনার ২০১৪ সাল

আপনি নিজেই আপনার ভাগ্য নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন শতকরা ৯০ থেকে ৯৬ ভাগ। বাকিটা আমরা ফেট বা নিয়তি বলতে পারি। ভাগ্য অনেক সময় অনির্দিষ্ট কারণে আপনা থেকেও গতিপথ বদলাতে পারে। এখানে রাশিচক্রে ‘নিউমারোলজি’ বা ‘সংখ্যা-জ্যোতিষ’পদ্ধতি প্রয়োগ করা হয়েছে।
কাওসার আহমেদ চৌধুরীমেষ Aries 
২১ মার্চ—২০ এপ্রিল। ভর # ৬ >
রাশিচক্রের শুরুতেই আপনার রাশি অর্থাৎ মেষ। তাই আপনার মাধ্যমেই সবাইকে জানাই নতুন বছরের শুভেচ্ছা। কামনা করি ২০১৪ সবার জন্য শুভ হোক। ২০১৪-তে আমরা সবাই থাকব ২+০+১+৪ = ৭-এর ঘরে। ৭ হচ্ছে একটি আধ্যাত্মিক সংখ্যা। এটির তাৎপর্য খুব গভীর, বিশেষত বাংলাদেশের ক্ষেত্রে। বাংলাদেশের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সংখ্যা যে ৭, তা আমি বহুবার হিসাব করে দেখিয়েছি। ২০১৪-তে আপনিও সংখ্যা ৭-এর প্রভাবে থাকবেন। ২০১৩ আপনার যেমনই যাক, আপনার উচিত হবে নতুন দিন থেকে নতুনভাবে চিন্তাভাবনা করা। বছরের মাঝামাঝি থেকে আপনি বিশেষভাবে ভালো থাকবেন। কাজেই এখন থেকে আশা ও বিশ্বাস নিয়ে এগিয়ে চলুন।
বৃষ Taurus 
২১ এপ্রিল—২১ মে। ভর # ১ >
মেষ রাশিতেই লিখেছি যে ২০১৪ সালে বাংলাদেশ সংখ্যা ৭-এর ঘরে থাকবে। সংখ্যা ৭-এর তাৎপর্য কী তা-ও বললাম। ২০১৩ সালে আপনার মনে অনেক দ্বিধাদ্বন্দ্ব ছিল। কিছুটা উদাসীনতাও ছিল। আগামী বছর আর তেমন কিছু নেই। বছরটি আপনার কাটবে আর্থিক সচ্ছলতায় ও প্রচুর আনন্দে। আগের মতোই আপনি মানুষের ভালোবাসা ও সহযোগিতা পাবেন। দু-চারজন যদি আপনার প্রতি বিমুখ থাকে, তাহলেও উৎসাহ হারাবেন না। যাঁরা ব্যবসা এবং সৃষ্টিশীল কাজে যুক্ত আছেন, তাঁরা বিশেষ সাফল্য পাবেন। শিক্ষার্থীদের জন্য ২০১৪ বিশেষ শুভ হবে। চাকরিজীবীরা আশানুরূপ উন্নতি করবেন। ২০১৪-তে যাঁরা বিয়ের পিঁড়িতে বসবেন, তাঁদের জন্য শুভকামনা রইল। অনেকেরই বছরের শেষ দিকে বিদেশ ভ্রমণ হতে পারে।
মিথুন Gemini 
২২ মে—২১ জুন। ভর # ৬ >
প্রাথমিক বাধায় থমকে যাবে—এই চরিত্র মিথুনের নয়। তা ছাড়া মিথুনের সামনে রয়েছে একটি সম্ভাবনাময় বছর। মিথুন সব সময়ই পরিবর্তনের অনুরাগী। পুরোনো স্রোত থেকে বেরিয়ে সে সব সময় নতুন দিকে চলে যেতে অভ্যস্ত। এই প্রবণতা ২০১৪-তে তাকে নতুন দিকে নিয়ে যাবে। তবে, অতিরিক্ত আবেগটা যথারীতি একটু সামলে চলতে হবে। জীবনের বর্তমান পরিসরে যে প্রতিকূলতা আছে, তা আগামী কয়েক মাসের মধ্যে কেটে যাবে। ২০১৩-তে আপনার মধ্যে যেসব পরিবর্তনের পরিকল্পনা এসেছিল, আগামী বছর আপনি তা বাস্তবায়ন করতে পারবেন। যতটা সম্ভব যুক্তির ভেতর দিয়ে চলার চেষ্টা করুন। কারও কানকথায় মনোযোগ দেবেন না। ২০১৪ শেষ পর্যন্ত আপনাকে শান্তি ও সাফল্য এনে দেবে।
কর্কট Cancer 
২২ জুন—২২ জুলাই। ভর # ২ >
২০১৩ আপনার মিশ্রভাবে কেটেছে। সুখ এসেছিল, তার সবটা হয়তো ধরে রাখা যায়নি। ২০১৪-তে এসে এর অনেকটাই যে পুষিয়ে যাবে তা বলা যায়। আপনার মধ্যে আছে প্রবল কল্পনাশক্তি ও বাস্তবতাবোধ। এই দুইয়ের সংমিশ্রণ ব্যক্তি হিসেবে আপনাকে খুব শক্তিশালী করে তুলেছে। আপনি নিজের এই শক্তির ওপর আস্থা রাখুন। যেকোনো সংকট আপনি পার হয়ে যাবেন এবং চূড়ান্ত সাফল্য আপনার হাতে ধরা দেবে। বিশেষত সৃজনশীল কাজে কর্কট তাঁর দক্ষতার প্রমাণ রাখবেন।
সিংহ Leo 
২৩ জুলাই—২৩ আগস্ট। ভর # ১ >
রাশিচক্রে সিংহের শক্তি আলাদাভাবে চিহ্নিত। প্রবল বাধার মুখেও সিংহের মাথা থাকে ধীর, শত চাঞ্চল্যের মধ্যেও তিনি স্থিরভাবে লক্ষ্যের দিকে এগিয়ে যান। আগেও বলেছি, ২০১৩ তাঁর জন্য একটি মাইলফলক হয়ে থাকবে। ২০১৪-তে সিংহ উপনীত হবেন জীবনের এক নতুন পর্যায়ে। তাঁর ব্যক্তিগত এবং সামাজিক প্রভাব বৃদ্ধি পাবে। টাকার জন্য তাঁকে কখনো ভাবতে হবে না। পরিশ্রম করতে হলেও উপার্জন তাঁর খুব ভালো হবে। প্রচুর মানুষের সহযোগিতা তিনি পাবেন। ২০১৪-তে সামাজিক যোগাযোগ বৃদ্ধির মাধ্যমে পেশাগত জীবনে তিনি বিরাট সাফল্য পাবেন।
কন্যা Virgo 
২৪ আগস্ট—২৩ সেপ্টেম্বর। ভর # ২ >
শীতের মধ্যে বছর শুরু হয়, তাই বলে কি শীতে জমে থাকবেন? মনটাকে উষ্ণ করুন, আমি আপনাকে ভালো ভালো কথাই শোনাব। ২০১৪ সালটি রয়েছে সংখ্যা ৭-এর ঘরে। লাকি সেভেন। সৌভাগ্য আপনার সবদিক দিয়েই আসবে। আগামী বসন্ত থেকেই এর ইশারা পাবেন। কন্যা জাতক-জাতিকার আত্মমর্যাদাবোধ খুব বেশি। অল্প নিন্দায় বা প্রশংসার অভাবে তাঁরা সহজেই ভেঙে পড়েন। এর দরকার নেই। কেননা কন্যা হিসেবে ২০১৪-তে এসে আপনি আশাতীত স্বীকৃতি ও প্রশংসা পাবেন। আপনার অন্যান্য বস্তুগত অর্জনও কম হবে না। মনের মধ্যে বিষণ্নতা জমে উঠতে দেবেন না কিছুতেই। সুযোগ পেলেই বন্ধু ও আপনজনের সঙ্গে সময় কাটান। পরিশ্রম ও বিশ্রামের মধ্যে ভারসাম্য বজায় রাখুন। আর যথারীতি তর্ক ও বিবাদ এড়িয়ে চলার চেষ্টা করুন। ২০১৪ আপনার জন্য সুন্দর একটি সময় এনে দেবে।
তুলা Libra 
২৪ সেপ্টেম্বর—২৩ অক্টোবর। ভর # ২ >
২০১৪-তে এসে তুলা এক তাৎপর্যময় পরিমণ্ডলে প্রবেশ করেছে। এখানে রয়েছে নতুন জীবনের চ্যালেঞ্জ। সব চ্যালেঞ্জেই তুলা শক্তিশালী এবং সৌভাগ্যের দাবিদার। ২০১৩-এর ব্যাপারে বলা হয়েছিল, ২০১৪-তে তুলার জীবনে বড় ধরনের পরিবর্তন আসতে পারে। এর জন্য মানসিক প্রস্তুতি নিতেও বলা হয়েছিল। ২০১৪-তে এসে এ কথার সত্যতা প্রমাণিত হবে। তুলার রাশিগত চরিত্র তাঁকে তাঁর জীবনের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় সাহায্য করবে। আর্থিক ও অন্যান্য জাগতিক দিক দিয়ে বছরটি তুলার জন্য শুভ সুযোগ বয়ে আনব, তবে এ সুযোগ তাঁকে কাজে লাগাতে হবে।
বৃশ্চিক Scorpio 
২৪ অক্টোবর—২২ নভেম্বর। ভর # ৭ >
লক্ষ করে দেখুন বৃশ্চিক রাশির ভর হচ্ছে ৭। এদিকে ২০১৪ মানে হচ্ছে ২+০+১+৪ = ওই সেই ৭। যেকোনো মিলই হচ্ছে শুভ। ৭-এর এই সমাহার বিশেষ প্রণিধানযোগ্য। ২০১৪-তে এসে আপনার কর্মস্পৃহা বৃদ্ধি পাবে। অসম্পূর্ণ কাজগুলো আপনি সম্পূর্ণ করতে পারবেন। যেকোনো পরিকল্পনা বাস্তবায়নে আপনার মনে আলাদা একটা সাহস দেখা দেবে। মনের মধ্যে নানা দুশ্চিন্তা এলেও আপনি তা সরিয়ে দিতে পারবেন। আর্থিক অবস্থা থাকবে চমৎকার। কর্ম ও সামাজিক ক্ষেত্রে সুনাম বৃদ্ধি হবে। আপনার নেতৃত্বগুণের ওপর অনেকেই ভরসা রাখেন, তাঁদের হতাশ করবেন না।
ধনু Sagittarius 
২৩ নভেম্বর—২১ ডিসেম্বর। ভর # ৯ > 
ধনু রাশির ভর ৯। আর ২০১৪ রয়েছে সংখ্যা ৭-এর ঘরে। এখন ৭+৯ = ১৬। ১৬ মানে হচ্ছে ১+৬ = ৭। তাহলে ২০১৪-তে ঘুরেফিরে আপনি সংখ্যা ৭-এর প্রভাবে আসছেন। আগেই বলা হয়েছে, ৭ একটি আধ্যাত্মিক সংখ্যা। কাজেই ২০১৪-তে আপনি মানসিকভাবে বেশি ক্রিয়াশীল থাকবেন। এ অবস্থার ভারসাম্য বজায় রেখে চলা আপনার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এটুকু হলেই সারা বছর কাজে-কর্মে আপনি পরিপূর্ণতা অর্জন করবেন। জীবনের কোনো বাধাই আপনাকে আটকে রাখতে পারবে না। ধনুর দ্বৈতসত্তা তাঁকে একটি বৈশিষ্ট্য দিয়েছে। এই বৈশিষ্ট্য ২০১৪-তে এসে দারুণভাবে কাজে লাগবে। সবমিলে ধনু এক নতুন জীবনের দিকে এগিয়ে যেতে সক্ষম হবেন।
মকর Capricorn 
২২ ডিসেম্বর—২০ জানুয়ারি। ভর # ৩ >
রাশিগতভাবেই মকর প্রচণ্ড সাহসী এবং কঠোর সংগ্রামে অভ্যস্ত। ২০১৪-তে এসে তাঁর অনেক সাফল্য আছে, তবে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ কাজে তাঁকে একটু নমনীয় ভাব গ্রহণ করতে হবে। ২০১৪ মকরের জন্য সার্বিকভাবে খুবই শুভ। অনেক কঠিন বাধা তিনি অল্প চেষ্টায় পার হতে পারবেন। তবে শক্তি বা ক্ষমতার প্রয়োগে যেন অপচয় না ঘটে। মকর যদি তুচ্ছ কাজে শক্তি প্রয়োগ করে ক্লান্ত না হয়ে পড়েন, তাহলে তিনি বিরাট কিছু অর্জন করবেন।
কুম্ভ Aquarius 
২১ জানুয়ারি—১৮ ফেব্রুয়ারি। ভর # ৯ >
বর্তমানটাই সবকিছু নয়। বর্তমান দাঁড়িয়ে আছে অতীতের ওপর এবং অতীত ও বর্তমান মিলে মানুষকে নিয়ে যায় ভবিষ্যতের দিকে। গোড়াতেই এ কথাটা মনে রাখুন। কুম্ভর রাশিগত গুণ অজস্র। তাই তাঁর জন্য আত্মবিশ্লেষণ একটি জরুরি ব্যাপার। আত্মবিশ্লেষণের মাধ্যমে কুম্ভ হিসেবে আপনি আপনার দোষ ও গুণগুলো চিহ্নিত করুন। আপনি যে পেশাতেই থাকুন না কেন, ২০১৪ আপনার জন্য একটি সফল বছর হয়ে উঠবে। এ বছর আপনজনের সমর্থন ও সহযোগিতা পাওয়া আপনার জন্য অনেকটাই সহজ হবে। তাদের দিকে খেয়াল রাখুন, তারাও আপনার ভালোমন্দের দিকে খেয়াল রাখবে। ২০১৪-তে আপনার আর্থিক অবস্থা ভালো থাকবে এবং আপনি বিদেশ ভ্রমণেরও সুযোগ পেতে পারেন।
মীন Pisces 
১৯ ফেব্রুয়ারি—২০ মার্চ। ভর # ৩ >
মীন একটি মহৎ রাশি। এ রাশির অধীনে অনেক বড় বড় মানুষের জন্ম। রহস্যের প্রতি মীনের রয়েছে দুর্বার আকর্ষণ। এ আকর্ষণ তাঁদের নিয়ে যায় নতুন নতুন জ্ঞানের দিকে। ২০১৪ আধ্যাত্মিক সংখ্যা ৭-এর ঘরে। মীনের ভর সংখ্যা যে ৩, সেই ৩-ও একটি আধ্যাত্মিক সংখ্যা। এর প্রভাবে মীন জাতক-জাতিকা সমাজে আদর্শ মানুষ হিসেবে উজ্জ্বল হয়ে ওঠেন। ২০১৪ মীনের জন্য বয়ে আনবে এক নতুন বার্তা। এ সময় তাঁকে মানসিক পরিচর্যায় মনোযোগী হতে হবে। এ পরিচর্যা তাঁকে জীবনের যোগ্য করে রাখবে।
শুভ হোক সবার নতুন বছর।

সূত্র: প্রথম আলো

comments (0) / Read More

/ Labels: , ,

কাওসার আহমেদ চৌধুরীর চোখে কেমন যাবে নববর্ষ ১৪২০


  • কাওসার আহমেদ চৌধুরী
    কাওসার আহমেদ চৌধুরী
1 2
রাশি হোক যাহা তাহা, ভাগ্য হোক ভালো
মেষ Aries ২১ মার্চ—২০ এপ্রিল। ভর # ৬ >
ইচ্ছে তো আছে বাংলা নববর্ষে আপনার রাশিফল লিখব খুব কবিত্বপূর্ণ রাবীন্দ্রিক ভাষায়, তবে ইচ্ছেটা টিকবে কি না জানি না। কারণটা হচ্ছে, আমার বদ খাসিলত। বাংলার সঙ্গে যথেচ্ছ হিন্দি-উর্দু-ইংরেজির মিশেল দিই বলেই তো বাজারে আজ আমার এত দুর্নাম। এই অপসংস্কৃতি থেকে যাতে বেরিয়ে আসতে পারি—সেই দোয়াই আপনি আমার জন্য করবেন। এসব লিখে ফেলার পর এবার আপনার নববর্ষের রাশিফল প্রসঙ্গে আসা যায়। আপনি নিশ্চিন্ত থাকুন, ১৪২০ রাশি মেয়াদে আপনি দারুণ সব সাফল্য পাবেন। ২০-৩০ শতাংশ ক্ষেত্রে আপনি যে স্বীকৃতি বা প্রশংসা তেমন একটা পাবেন না—এতে আপনার মাইন্ড ব্যাড অর্থাৎ মন খারাপ করা উচিত নয়। আকলমন্দ বা বুদ্ধিমান নারী কিংবা পুরুষ হয়ে অবস্থাটা বুঝে নেবেন। আর শুনুন—কানে কানে বলছি, কাউকে বলবেন না, আগামী মেয়াদে আপনার খুব ঘন কিসিমের পেয়ার-মোহাব্বত জারি থাকবে।
বৃষ Taurus ২১ এপ্রিল—২১ মে। ভর # ১ >
দেখুন, আমি একজন নিরপেক্ষ, নির্দলীয় রাশি কেরানি। কারও মুখের দিকে না তাকিয়ে রাশির লেজার বইয়ে হিজিবিজি লিখে যাই। তা সত্ত্বেও আপনার ১৪২০ বাংলা সনের সৌভাগ্যলিপি আমার মনে রীতিমতো হিংসে জাগিয়ে তুলছে। তাই ভাবছি, এই রাশিফলটা আপনাকে দেব, না ছিঁড়ে নিয়ে নিজের পকেটে ভরে রাখব। আমি দেখতে পাচ্ছি, এই বাংলা নতুন বছরটিতে আপনি খুব বিত্তশালী হয়ে উঠবেন, অনেক দান-খয়রাত করবেন এবং লোকে আপনার প্রশংসায় রীতিমতো হইচই শুরু করে দেবে। অনেকেই আপনার ক্ষতি করার চেষ্টা করবে, লেকিন কোই নেহি বাচে গা! তবু আপনি নিজের যা কিছু আছে—সব সামলে রাখবেন। কারও বদ বা কুদৃষ্টি যেন না পড়ে। বাকিটা আমি দেখছি। আর দেখুন, বাংলাদেশটা হচ্ছে নদী-নালা বর্ষা-বন্যা আর হরতালের দেশ। ওসব দেখে কখনোই ঘাবড়াবেন না। ...ভাই অ্যান্ড বোন, যদি দেখেন নতুন বছরে আমার কথা অনুযায়ী আপনার ভালো ইনকাম হয়েছে, তাহলে আমাকে দুটো পয়সা দিয়ে সাহায্য করতে ভুলবেন না। সময়টা আমার খুব খারাপ যাচ্ছে, তাই লজ্জার মাথা খেয়ে কথাটা বলেই ফেললাম।
মিথুন Gemini ২২ মে—২১ জুন। ভর # ৬ >
কিছু মানুষ আছেন, ঘটি উল্টে দেওয়ার ব্যাপারে যাঁরা অত্যন্ত দক্ষ। ওটাই তাঁদের প্রধান কাজ। আপনিও এঁদেরই দলের একজন। কথাটা পজিটিভ দৃষ্টিকোণ থেকে বললাম। কাজেই দয়া করে আপনি আমার ‘কথার ঘটিটা’ উল্টে দেবেন না। মিথুন জাতক অত্যন্ত সাহসী। একটা অচল অবস্থাকে সে এক ঝটকায় বদলে ফেলার ক্ষমতা রাখেন। ইতিহাসে আমরা এমন অনেক মিথুন পাই, যাঁরা একক প্রচেষ্টায় একটি দেশ বা জাতির মধ্যে বৈপ্লবিক পরিবর্তন এনে দিয়ে গেছেন—যার প্রয়োজন ছিল। বাংলা ১৪২০ রাশিচক্রের মেয়াদকালে আপনি কোথাও পরিবর্তন সূচনার ক্ষেত্রে অবদান রাখবেন। তবে এর জন্য নিজের অন্তর্জগতে এবং ব্যক্তিগত জীবনেও আপনাকে কিছু পরিবর্তন আনতে হবে। বলাবাহুল্য, এই মুহূর্তে কিছু কঠিন সময়ের মাঝখান দিয়েও আপনাকে যেতে হবে। বরাবর যারা আপনার সমর্থক ছিল—তাদের সঙ্গে প্রচুর কথাবার্তা বলতে হবে। এসবই আপনি শেষ পর্যন্ত পারবেন।
কর্কট Cancer ২২ জুন—২২ জুলাই। ভর # ২ >
ওপরে ওঠার সিঁড়ি আপনার সামনে থাকলেও ওই সিঁড়িটা আপনাকেই বেয়ে তারপর ওপরে উঠতে হবে। আলোচ্য বছরে নিজ ভাগ্যোন্নয়নের জন্য একাধিক পথ আপনি সামনে খোলা পাবেন। এর দু-একটি পথ ঠিকমতো বেছে নিতে পারলেই তো আপনার কাম বনে যাবে; সারা বছর ঠ্যাং-এর ওপর ঠ্যাং চড়িয়ে বসে খাবেন। দেখুন, যেকোনো কাজ উৎকৃষ্টভাবে করতে গেলে চাই প্রবল কল্পনাশক্তি। শুধু মেধা বা বুদ্ধি দিয়ে খুব বেশি দূর এগোনো যায় না। কর্কট তার কল্পনাশক্তির জন্য বিশেষ খ্যাত। কাজেই আগামী সময়টা আপনি যদি আপনার এই ক্ষমতাটি কাজে লাগান—তাহলে আপনার সাফল্য অবধারিত। ব্যবসা ও শিল্পচর্চায় যারা নিয়োজিত—কথাটা তাদের জন্য বিশেষভাবে প্রযোজ্য। আপনার প্রতি পরামর্শ, সারা বছর আচার-আচরণে ভারসাম্য বজায় রেখে চলবেন, বিষণ্নতাকে প্রশ্রয় দেবেন না এবং যতটা সম্ভব হাসিখুশি থাকবেন।
সিংহ Leo ২৩ জুলাই—২৩ আগস্ট। ভর # ১ >
পজিটিভ অর্থে বলছি, টাকাপয়সাটা নতুন বছরে আপনার জীবনে খুব গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠবে। টাকা কীভাবে খরচ কিংবা বিনিয়োগ করলে সবচেয়ে ভালো হয়—সেটাও ভাবতে হবে। লোকের ওপর আপনার এবং আপনার ওপর লোকের প্রভাব কতটুকু হয়—সেটাও একটা দেখার বিষয়।
তবে যথেষ্ট সাফল্য আছে—এটুকু বলা যায়। বছরের মধ্যভাগের কাজের ফলগুলো পরবর্তী পর্যায়ে গিয়ে পাবেন। ভ্রমণ অনেক হতে পারে। নিজের শক্তি সম্পর্কে সঠিক ধারণা নিতে চেষ্টা করুন। অতিরিক্ত বাড়িয়ে অথবা কমিয়ে ভাববেন না। চারপাশের লোকজনকে বিশ্বাস করবেন, তবে একেবারে ঢালাওভাবে নয়। যিনি প্রকৃতই আপনার পরীক্ষিত বন্ধু, তাঁকে দূর থেকে কাছে টেনে নিন এবং তাঁর উপদেশ মন দিয়ে শুনুন। মনের ওপর থেকে ক্ষতিকর চাপ সরানোর জন্য পছন্দের লোকজনকে কাছে রাখুন এবং হাতে যখন কাজ থাকবে না—তখন বিষণ্নতায় ডুবে না থেকে বিনোদনের মধ্যে সময় কাটান।
কন্যা Virgo ২৪ আগস্ট—২৩ সেপ্টেম্বর। ভর # ২ >
নতুন এই বছরে সাধারণভাবে আপনি খুব চমৎকার অবস্থার মধ্য দিয়ে দিন কাটাবেন। অনেক ধরনের চাপ হয়তো আসবে, তবে তা আপনার মনের ওপর তেমন কোনো ছাপ ফেলতে পারবে না বলেই আমার মনে হয়। এর একটা প্রধান কারণ এই যে, আর্থিক অবস্থা এ সময়ে আপনার যথেষ্ট শক্তিশালী থাকবে।
বন্ধুত্ব ও ভালোবাসার জগৎ থেকে আলোচ্য বছরে প্রীতিপ্রদ সমর্থন আপনি পাবেন। এর জন্য কোনো টাকাপয়সা খরচ করতে হবে না। তবে আপনি স্বেচ্ছায় খরচ করতে চাইলে কেউ আপনাকে বাধাও দেবে না। ভালোবাসা যতই পান—গায়ে পড়ে কারও সঙ্গে বিবাদে জড়ানোটা কিন্তু একেবারেই বুদ্ধির কাজ হবে না। সৃজনশীল কাজের স্বীকৃতি শিগগিরই আপনি পাবেন।
তুলা Libra ২৪ সেপ্টেম্বর—২৩ অক্টোবর। ভর # ২ >
বৈশাখ, জ্যৈষ্ঠ, আষাঢ়। ‘আসছে আষাঢ় মাস/কী জানি কী হয়...’ এ রকম করুণ ভাবনার কোনো কারণ আপনার নেই। আষাঢ় এলে বৃষ্টি হয়। সেটাই হবে, সুন্দর সবুজ হয়ে উঠবে আপনার রুক্ষ পৃথিবী। অর্থাৎ দেহ ও মনের স্বস্তিতে ভরে উঠবেন আপনি, যে অর্থেই সেটার বিশ্লেষণ করুন। তবে এই ১৪২০ সালে প্রকৃত বন্ধু ও শত্রুকে চিনে নেওয়ার একটা চূড়ান্ত সময় আপনার সামনে আসবে। শত্রুর হাতে আর্থিক দিক থেকে বড়ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার একটা আশঙ্কা থেকে যায়, কাজেই আগেভাগেই তাকে চিহ্নিত করা ভালো। এ ব্যাপারে যারা আপনাকে সাহায্য করতে পারে—তাদের সাহায্য নিন। আপনি যাদের দুর্দিনে উপকার করেছেন, আপনার প্রয়োজনের মুহূর্তে তাদের বিশ্বস্ত সাহায্য আপনি দাবি করতেই পারেন। তুলা জাতক-জাতিকার মন ইস্পাতের মতো সুদৃঢ়। যেকোনো বিপর্যয় তারা শেষ পর্যন্ত মনের জোরেই পার হয়ে যায়।
বৃশ্চিক Scorpio ২৪ অক্টোবর—২২ নভেম্বর। ভর # ৭ >
বছরের শুরু অর্থাৎ বৈশাখ, জ্যৈষ্ঠ ও আষাঢ়—এই তিনটি মাস আপনার জন্য বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ হবে। তাই শুরুতেই মানসিক প্রস্তুতি নিয়ে নিলে আপনি ভালো করবেন। পেশাগত এবং উপার্জন বৃদ্ধির জন্য শুরু থেকেই যদি আপনি খুব নিবিড়ভাবে কাজ করতে থাকেন—তাহলে বছরের শেষে বিশাল কিছু সাফল্য আপনি পাবেন। আলোচ্য সময়ে আপনার নানাবিধ পেশাগত সাফল্য, ভ্রমণ, স্বীকৃতি, সুনাম বৃদ্ধি ইত্যাদি রয়েছে। ছদ্মবেশী বন্ধুদের ব্যাপারে একটু সতর্ক থাকবেন। প্রেম-ভালোবাসার একটা সমতল খেলার ময়দান আপনি পাবেন। অবশ্য কিছু দ্বন্দ্ব-সংঘাতের আশঙ্কাও বাদ দেওয়া যায় না। আপনার স্বাভাবিক অনুসন্ধিৎসু মনটিকে আলোচ্য সময়ে খুব তৎপর রাখতে হবে। দেহমন সদা জাগ্রত থাকলেও যথেষ্ট বিশ্রাম ও বিনোদনের প্রতি যেন অবহেলা করবেন না। সঞ্চয়ে মন দেবেন।
ধনু Sagittarius ২৩ নভেম্বর—২১ ডিসেম্বর। ভর # ৯ >
বরাবরের মতো ১৪২০ সনেও প্রবল ক্রিয়াশীল থাকবে আপনার দ্বৈত সত্তা। এর ফলে আপনার সৃজনশীলতা বিকশিত হবে এবং আপনার কাজের পরিধি অনেকখানি ছড়িয়ে পড়বে। এ সময় যদি মনটাকে সংগঠিত করে, অর্থাৎ গুছিয়ে চলতে পারেন, তাহলে অনেক বড় সাফল্য আপনি পাবেন। দেহ এবং মনের সহনশীলতা আপনাকে বাড়াতেই হবে। একটানা কাজ কখনোই করবেন না। কাজের ফাঁকে ফাঁকে বিশ্রাম নেবেন। বাইরের লোকের সমালোচনায় বেশি কান দেবেন না। নিজের বিবেক, বুদ্ধি এবং বিচার দ্বারা পরিচালিত হওয়ার চেষ্টা করবেন। কাজ পেছাবেন না; জমিয়ে রাখবেন না। অনেক ধনুর মধ্যে কাজ ফেলে রাখার একটা প্রবণতা দেখা যায়, যা তাদের জন্য অনেক সমস্যা তৈরি করে। নববর্ষ মেয়াদে অর্থাৎ ১৪২০ সনে ধনুর আর্থিক অবস্থা স্থিতিশীল থাকবে। অনেকেই উল্লেখযোগ্য আর্থিক উন্নতি হাতে পাবেন।
মকর Capricorn ২২ ডিসেম্বর—২০ জানুয়ারি। ভর # ৩ >
আপনার সময় ভালো। অনেক অগ্রগতি আছে। অনেক সমস্যার সমাধানও খুঁজে পাবেন। মনে দুর্ভাবনা যদি কিছু জমে তো জমতে পারে এই ১২ মাসে। তবে এসব দুর্ভাবনা অনেকটা প্রাকৃতিক নিয়মেই হাওয়ায় মিলিয়ে যাবে। এর জন্য আলাদা কোনো চেষ্টা করতে হবে না। আপনার আর্থিক অবস্থা খুব মজবুত থাকবে, যা আপনাকে প্রতিকূল অবস্থার মধ্যেও স্থির থাকতে সাহায্য করবে। সিদ্ধান্তের দৃঢ়তা আপনার একটা বড় শক্তি। এই শক্তি দিয়ে অনেক বড় বড় সাংসারিক ও মানসিক যুদ্ধ জয় করতে আপনি এখনো সক্ষম। কাজেই নিজের ওপর ভরসা রাখুন। বন্ধুবান্ধব ও নিকটজনের সঙ্গে যথাসম্ভব বেশি সময় কাটানোর বিষয়টিকে এ বছর আলাদা গুরুত্ব দিন। চমৎকার কাটবে সারাটা বছর।
কুম্ভ Aquarius ২১ জানুয়ারি—১৮ ফেব্রুয়ারি। ভর # ৯ >
আপনার পেশা চাকরি, ব্যবসা, রাজনীতি বা অন্য যা কিছুই হোক না কেন—এই ১৪২০ সন আপনি নিজেকে অনেকখানি গুছিয়ে আনতে পারবেন। চিন্তায় শৃঙ্খলা বৃদ্ধির ফলে এ বছর সামাজিক ক্ষেত্রে আপনার সমন্বয় জোরদার হবে। আপনার ওপর মানুষের আস্থাও বেড়ে যাবে বহু গুণে। এ থেকে তারা উপকৃত হবে, আপনি নিজেও উপকৃত হবেন। টাকাপয়সার আগমন এবং নির্গমন—দুটোই হবে প্রবল বেগে। তা হলেও আপনি তেমন অর্থকষ্টে পড়বেন বলে মনে হয় না। কিছু একটা নিরাপত্তাবলয় আপনার চারপাশে তৈরি হবে। এ বছর কোনো হঠকারিতা যেন করে বসবেন না। যেমন, তড়িঘড়ি সিদ্ধান্ত নিয়ে আচমকা কিছু একটা করে বসা। যা করার ধীরেসুস্থে এবং ভালো লোকের পরামর্শ নিয়ে করুন। অবশ্য এমনিতেও এ ধরনের কিছু করার কথা আপনার নয় এ বছর, যেহেতু শুরুতেই বলা হলো—আপনার মন এখন গোছানো বা সংগঠিত থাকবে।
মীন Pisces ১৯ ফেব্রুয়ারি—২০ মার্চ। ভর # ৩ >
রাত এবং দিন—দুটোই সত্য, দুটোই প্রকৃতির বাস্তব দুটি অবস্থা। তবুও সূর্যের আলোয় উদ্ভাসিত দিনটাকেই আমাদের প্রকৃত সত্য বলে মনে হয়। সেই দিনের শুরু দিয়েই হতে যাচ্ছে আগামীকাল আপনার-আমার সবার নতুন এক বছর: ১৪২০।
শাস্ত্রমতে, বছরটি মীন জাতক-জাতিকার জন্য বয়ে নিয়ে আসছে নতুন এক সুসমাচার। নবতর কিছু সৌভাগ্য হয়তো এবার যোগ হবে তাদের ভাগ্যচক্রে।
হয়তো বলছি কেন, নিশ্চিতভাবেই বলা উচিত কথাটা—ভবিষ্যদ্বাণীই যদি করলাম। আলোচ্য সময়ে মীন-এর অল্পকটি ছাড়া বাকি সব এজেন্ডাই পূরণ হবে বলে মনে হয়। তিনি নিজে এতে খুশি হবেন এবং অন্যদেরও খুশি করবেন, এ তো আর বলার অপেক্ষা রাখে না। যে কোনো পেশায় নিয়োজিত থেকেই মীন ১৪২০ বঙ্গাব্দে অর্জন করবেন প্রভূত অর্থ এবং সম্মান।
শুভ হোক সবার ১৪২০ সন!
আপনি নিজেই আপনার ভাগ্য নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন শতকরা ৯০ থেকে ৯৬ ভাগ। বাকিটা আমরা ফেট বা নিয়তি বলতে পারি। ভাগ্য অনেক সময় অনির্দিষ্ট কারণে আপনা থেকেও গতিপথ বদলাতে পারে। এখানে রাশিচক্রে আমি ‘নিউমারলজি’ বা ‘সংখ্যা-জ্যোতিষ’ পদ্ধতি প্রয়োগ করেছি।—কাওসার আহমেদ চৌধুরী


comments (0) / Read More

/ Labels: ,

কেমন যাবে নতুন বছর ২০১৩



রাশি কখনোই ভাগ্য নিয়ন্তা নয়। মানুষের কর্মই তার ভাগ্য নির্ধারণ করে। জ্যোতিষশাস্ত্র কেবল কিছু সূত্র ধরে সম্ভাবনার পথ বাতলে দেয়।
সর্বাধুনিক সংখ্যাতত্ত্বের নিরিখে বিশেষ আয়োজনে ১২ রাশির ২০১৩ সালের রাশিফল তুলে ধরা হয়েছে। ইতিবাচকের পাশাপাশি কারও কারও রাশিতে নেতিবাচক বিষয়েরও উল্লেখ রয়েছে।
এতে হতাশ হওয়া বা ভয়ের কোনো কারণ নেই। নিজের চেষ্টা, কর্ম আর আত্মবিশ্বাসই আপনাকে গন্তব্যে পৌঁছে দেবে।
মেষ [২১ মার্চ-২০ এপ্রিল]
মেষ রাশির বৈশিষ্ট্য : মেষ রাশি মঙ্গলগ্রহের জাতক। জয়ের নেশায় প্রাণান্ত লড়াই করা মেষ জাতকের স্বভাব। মেষ জাতক-জাতিকার মধ্যে সাহস, ব্যক্তিত্ব ও তেজস্বী মনোভাবের প্রাবল্য থাকে। মেষ রাশির জন্মকালে মঙ্গল, রবি, বৃহস্পতি ও বুধ অনুকূল থাকলে তা জীবন সংগ্রামে সাফল্য আনতে বিশেষ সহায়তা করে। এরা অত্যন্ত স্বাধীনপ্রিয় হয়ে থাকে। সত্য কথা বলতে দ্বিধাবোধ করে না। সব কাজে এরা নেতৃত্ব দিয়ে থাকে। এদের জীবনীশক্তি অত্যধিক।
নতুন বছর কেমন যাবে : দীর্ঘদিনের পুরনো কোনো পারিবারিক সমস্যার সমাধান হবে। পুরাতন প্রেম ভেঙে যেতে পারে। নতুন নতুন কাজ হাতে আসবে। নতুন কোনো বন্ধু উপকারে আসতে পারে। ভয় ও সঙ্কোচ ধীরে ধীরে কেটে যাবে। এ বছর প্রেমের বিয়ের ব্যাপারে অভিভাবকদের কেউ কেউ প্রথমে অমত করলেও শেষ পর্যন্ত বিষয়টি তারা মেনে নেবে। নগদ টাকার অভাবে গত বছর যে সব ব্যবসায়িক কার্যক্রম বন্ধ করে দিতে হয়েছিল এ বছর সেগুলোতে আবার হাত দিতে পারবেন। বছরের কোনো কোনো সময় অন্যের দেওয়া ভুল তথ্য প্রেমের ব্যাপারে জটিলতার সৃষ্টি করতে পারে। কোনো কোনো ক্ষেত্রে ভেঙে যাওয়া সম্পর্ক জোড়া লাগতে পারে। ছাত্রছাত্রীরা এ বছর বিভিন্ন পরীক্ষায় বিশেষ কৃতিত্বের স্বাক্ষর রাখতে সক্ষম হবে। এ বছর একাধিক লটারি কিংবা অন্য কোনো উপায়ে আকস্মিকভাবে অর্থপ্রাপ্তির সম্ভাবনা আছে। এ বছর প্রিয়জনের কাছ থেকে মানসিক আঘাত পাওয়ার ক্ষীণ সম্ভাবনা আছে।
মেষ রাশির শুভ সংখ্যা ৩ ও ৯।
শুভ রং : লাল, বেগুনি ও সাদা।
শুভ রত্ন : প্রবাল, শুভ ধাতু : তাম্র
বৃষ [২১ এপ্রিল-২১ মে]
বৃষ রাশির বৈশিষ্ট্য : বৃষ রাশি শুক্র গ্রহের জাতক। বৃষ রাশির মধ্যে রয়েছে এক অনমনীয় দৃঢ়তা অথচ তাদের মধ্যে স্নেহ, মমতা, ভালোবাসা ও আনন্দ উপভোগের অভিলাষও কম নয়। এরা সাধারণত ধীরস্থির, ভদ্র ও শান্ত প্রকৃতির হয়ে থাকে। এরা সুশৃঙ্খল এবং আইন-কানুনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হয়। এরা যে কাজে নিযুক্ত হয় সে কাজে সাফল্য লাভের তীব্র ইচ্ছা পোষণ করে। শুক্রের প্রভাবে প্রেমিক বৃষ জাতকের সাধারণত বিপরীত লিঙ্গের প্রতি বিশেষ আকর্ষণ থাকে।
নতুন বছর কেমন যাবে : এ বছর ব্যবসায়ে পাওনা টাকা সহজেই আদায় হবে। শিল্প সংস্থাপন কিংবা প্রকল্প বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় অর্থের জোগান পাওয়া সহজ হবে। ব্যাংক-ঋণ পেতেও তেমন কোনো সমস্যা হবে না। যারা গত বছর প্রেমের ব্যাপারে আশাহত হয়েছিলেন, এ বছর তাদের অনেকের জীবনে প্রেম আসবে নির্ভরতার প্রতীক হয়ে। ব্যবসায়িক পরিকল্পনা বাস্তবায়ন হবে বিপরীত লিঙ্গের সহযোগিতায়। লটারি কিংবা অন্য কোনো উপায় আকস্মিকভাবে অর্থপ্রাপ্তির সম্ভাবনা আছে। শিক্ষাক্ষেত্রে দারুন উন্নতি হবে এ বছর। বিলাস দ্রব্যের ব্যবসায় উন্নতি হবে। সব মিলিয়ে বছরটি ভালো যাবে। আপনি লক্ষ্য করলে দেখবেন, বৈদেশিক বাণিজ্যের ক্ষেত্রে প্রত্যাশার চেয়ে বেশি সুযোগ হাতে আসবে। তবে সাবধানে এগুতে হবে। কারণ নিশ্চিত না হয়ে প্রবাস বা বিদেশ সফরে গেলে অনিশ্চয়তায় পড়তে পারেন। ভুগতে পারেন অর্থ কষ্টে। অন্যদিকে কারও কারও সম্পর্ক পারিবারিক সম্মতিতে শেষ পর্যন্ত বিয়েতে গড়াবে। তাই পারিবারিক সিদ্ধান্তকে প্রাধান্য দিলে লাভবান হবেন। অন্যথায় দুঃখ আছে কপালে।
পারিবারিক পরিমণ্ডলে আপনাকে কুশলী হতে হবে। আকস্মিকভাবে ধর্মকর্মে মনোযোগী হয়ে উঠতে পারেন কেউ কেউ। প্রবাসী প্রিয়জনদের আগমনে মুখরিত হবে এ বছর। সর্বোপরি সামাজিক মর্যাদা বাড়বে। বছরের শেষে অপ্রত্যাশিত অর্থযোগ রয়েছে। সারা বছরই কমলা রঙকে প্রধান্য দিতে হবে।
বৃষ রাশির শুভ সংখ্যা ৬।
শুভ রং : আকাশি, কমলা।
শুভ রত্ন : হিরা, পান্না, শুভ ধাতু : প্লাটিনাম
মিথুন [ ২২ মে-২১ জুন]
মিথুন রাশির বৈশিষ্ট্য : মিথুন রাশি বুধ গ্রহের জাতক। বড় রহস্যপূর্ণ এই রাশি। দ্বৈততা এদের চরিত্রে প্রকট। বৈচিত্র্য প্রিয় এই রাশির পুরুষ জাতকের যেমন রয়েছে দৃঢ়তা, কর্মশক্তি ও উৎপাদন শক্তি, তেমনি জাতিকার রয়েছে নারীসুলভ মমতা, নম্রতা, ভালোবাসা এবং স্নেহ। এদের বুদ্ধি খুব তীক্ষ্ন হয়ে থাকে। সৃজনশীল কাজ, শিল্প-সাহিত্য, সংগীত, নৃত্য এবং অভিনয়ে এদের যোগ্যতা থাকে। এদের মধ্যে উদারতা, পর দুঃখ কাতরতা এবং দৈবানুভূতি প্রবল হয়। একই সঙ্গে দুটো কাজে লেগে থাকা মিথুনের আরেকটি স্বভাব। নির্ভীক, স্পষ্টবাদিতা ও আত্দবিশ্বাসীও এদের চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য।
নতুন বছর কেমন যাবে : বছরের শুরু নয়, শেষার্ধে আপনার জন্য প্রত্যাশা অপেক্ষা করছে। তার মানে এই নয় যে, বছরের শুরুটা খারাপ যাবে। ভালো যাবে তবে তুলনামূলক ম্লান। অন্যদিকে বছরের দ্বিতীয়ার্ধে বিপরীত লিঙ্গের কারও কারও কাছ থেকে চাকরি ও ব্যবসা উভয় ক্ষেত্রেই প্রত্যক্ষ সহযোগিতা পাবেন। প্রত্যক্ষ না পেলেও পরোক্ষ সহযোগিতা নিশ্চিত। অন্যের পাওনা পরিশোধ করলে পিঠের বোঝা নেমে যাবে। ঠিক তেমনি পাওনা টাকা আদায়ের ব্যাপারে বিশেষ সাফল্য অর্জিত হবে। এমন কিছু পাওনা এ বছর আদায় করতে সক্ষম হবেন, যা ছিল প্রায় দুঃসাধ্য। বিশেষ করে ব্যবসায়ীরা এ বছর সাফল্যের মুখ দেখবেন। অন্যদিকে রাজনীতিবিদরা বছরের শুরুতেই এগিয়ে যাবেন। বিশেষ করে জনকল্যাণ ও সেবামূলক কাজকর্ম বেড়ে যাবে। সারা বছরই রোমান্স ও বিনোদন শুভ রয়েছে। দুই-একটি ক্ষেত্রে নিকটাত্দীয় কিংবা ঘনিষ্ঠ বন্ধুর বৈরিতার কারণে পুরনো প্রেমের সম্পর্কে ফাটল ধরবে। এ বছর যারা নতুন প্রেমে জড়াবেন তাদের কারও কারও ক্ষেত্রে বিয়ের সম্ভাবনা দেখা দিলে অভিভাবকের সম্মতিতেই বিয়ের কথাবার্তা পাকাপাকি হবে। পরিবারের সাহায্য-সহযোগিতা বাড়বে। জমিজমা-বাড়িঘরের বিষয়ে আপনাকে ভাবিয়ে তুলতে পারে। তাদের মাধ্যমে নিজের জন্য সুবিধা আদায় করা যেমন সহজ হবে, তেমনি অন্যকেও চাকরি অথবা ব্যবসা ক্ষেত্রে কিছুটা সুযোগ করে দেওয়া কঠিন হবে না। সবচেয়ে বড় কথা, নিজের চেষ্টা ও পরিশ্রম দিয়ে এগিয়ে যাওয়া যাবে এ বছর। একটা কথা অবশ্যই মনে রাখতে হবে, এ রাশির জাতক-জাতিকারা একটু রহস্যে ঘেরা থাকে। বিশেষ করে এদের চরিত্রে দ্বৈততা প্রকট আকার ধারণ করে। তারপরও সব বাধা অতিক্রম করে শেষ পর্যন্ত এগিয়ে যান তারা।
মিথুন রাশির শুভ সংখ্যা ৫।
শুভ রং : হালকা সবুজ, ক্রিম।
শুভ রত্ন : পোখরাজ, শুভ ধাতু : রুপা।
কর্কট [২২ জুন-২২ জুলাই]
কর্কট রাশির বৈশিষ্ট্য : রাশি চক্রের চতুর্থ রাশি কর্কট। কর্কট চন্দ্রগ্রহের জাতক। এটি জল রাশি এবং এর অর্থ কাঁকড়া। এ রাশির জাতক-জাতিকারা ঘরমুখী, সংবেদনশীল, আত্দকেন্দ্রিক ও খেয়ালি স্বভাবের হয়ে থাকে। এরা অতিরিক্ত কল্পনা ও আবেগপ্রবণ। এরা নিজের মনকে বেশি প্রাধান্য দেয়। আনন্দের নেশা এদের মধ্যে যেমন প্রবল হয় তেমনি মাঝে মধ্যেই বিষণ্নও হয়ে ওঠে। এরা সবার প্রশংসাপ্রত্যাশী হয়ে থাকে। অন্যের জন্য কিছু করলেও প্রতিবাদে খুব একটা পায় না তারা। পরোপকারের প্রতি ঝোঁক রয়েছে, সবাইকে আপন করে নিতে চায়। এদের স্মৃতিশক্তি বেশ তীক্ষ্ন হয়।
নতুন বছর কেমন যাবে : রাজনীতিতে এমন কিছু কর্মদক্ষতা আপনি প্রদর্শন করতে পারবেন, যার মাধ্যমে দল তথা বৃহত্তর জনগোষ্ঠী উপকৃত হবে। এ বছর বেশির ভাগ আইনি লড়াইয়ের ফলাফল আপনার অনুকূলে যাবে।
প্রতিশ্রুত অর্থের দেখা মিলবে, যা ব্যবসায়ের শ্রীবৃদ্ধি ঘটাতে সহায়ক হবে। মনের কোনো গোপন ইচ্ছা পূরণ হতে পারে। অহেতুক আবেগ সমস্যায় ফেলবে। সৃজনশীল পেশার সঙ্গে জড়িতরা সাফল্য পাবেন। এ বছর ব্যবসায়ে হাত দিয়ে পুঁজির জোগান, বিভিন্ন কর্মকাণ্ডে প্রভাবশালী ব্যক্তিদের প্রত্যক্ষ সহযোগিতা পাবেন। যেসব কর্মকাণ্ডে আর্থিক সম্পৃক্ততা রয়েছে সেগুলোর ব্যাপারে কারও কারও কাছ থেকে অপ্রত্যাশিতভাবে সাহায্য-সহযোগিতা পাবেন। চাকরিজীবীদের কুশলী হতে হবে। কর্মস্থলে আপনার দাপট বাড়বে। অবিবাহিতদের বিবাহের যোগ রয়েছে। পদস্থদের কেউ যাতে বিরূপ মনোভাব পোষণ না করে সে ব্যাপারে বছরের আগাগোড়াই লক্ষ্য রাখতে হবে। কেউ কেউ উচ্চ শিক্ষার ব্যাপারে বিদেশ যাত্রার জন্য যাবতীয় আনুষ্ঠানিকতা সুসম্পন্ন করতে পারবেন। আকস্মিকভাবে আপনি ধর্মীয় চিন্তা-চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে ধর্মকর্মে মনোনিবেশ করতে পারেন। বছরের আগাগোড়াই স্বাস্থ্যের প্রতি নজর রাখুন।
কর্কট রাশির শুভ সংখ্যা ২।
শুভ রং : হালকা সবুজ, সাদা ও কমলা।
শুভ রত্ন: মুক্তা, শুভ ধাতু : শঙ্ক ।
সিংহ [২৩ জুলাই-২৩ আগস্ট]
সিংহ রাশির বৈশিষ্ট্য : সিংহ রাশি রবিগ্রহের জাতক। রাশিচক্রের পঞ্চম রাশি এটি। এদের মধ্যে রাজকীয় ভাব বিদ্যমান। এদের আভিজাত্যের প্রতি মোহ থাকে। এরা উদার, দৃঢ়সংকল্প এবং নেতৃত্বশক্তির অধিকারী হয়। ঈষৎ গর্বিত, আগ্রহী এবং অন্যদের আকর্ষণ করানোর ক্ষমতা এদের প্রবল। বিশৃঙ্খলা একেবারেই ভালোবাসে না এরা। সবার জন্য নিজের স্নেহপ্রীতি, ভালোবাসা উজাড় করে দেয়। নিজের বিচার-বুদ্ধির ওপর তীব্র আস্থা থাকে, প্রচণ্ড আত্দবিশ্বাসী হয়। অনেক সময় প্রতিহিংসাপরায়ণ ও জেদের বশবর্তী হয়ে ট্র্যাজেডির শিকার হয়।
বছরটি কেমন যাবে : ব্যবসায়ীদের ভাগ্য এ বছর আকাশছোঁয়া। ব্যবসায়ে আটকে থাকা বকেয়া পাওনার ব্যাপারে এ বছর একটি গ্রহণযোগ্য সমাধান খুঁজে পাওয়া যাবে। শৌখিন দ্রব্যের ব্যবসায়ে সাফল্য আসতে পারে। এ ছাড়া সুতা, কাপড়, তৈরি পোশাক কিংবা যন্ত্রপাতির ব্যবসায়ে হাত দিলেও লাভবান হবেন। যারা ঠিকাদারি ব্যবসায়ের সঙ্গে জড়িত তাদের কেউ কেউ বছরের শুরুতে ভালো কাজের প্রস্তাব পাবেন। চাকরিজীবীদের জন্য বছরটি ভালোই যাবে। যারা নতুন চাকরিতে ঢুকেছেন তাদের কেউ কেউ বিদেশে প্রশিক্ষণের সুযোগ পাবেন। কখনো কখনো সহকর্মীর ভুলের দায়ভার আপনার উপরে চাপিয়ে দেওয়া হতে পারে। বছরের কোনো কোনো সময় বদলি সংক্রান্ত ঝামেলায় পড়ার সম্ভাবনাকে একেবারে নাকচ করে দেওয়া যাচ্ছে না। আবার কারও কারও ক্ষেত্রে সফলতার সর্বোচ্চ শিখরে পেঁৗছানোর সম্ভাবনা রয়েছে। এ বছর প্রেমের বিয়েতে অভিভাবকের সম্মতি পাওয়া সহজ হবে। নববিবাহিত দম্পতিদের মধ্যে সৃষ্ট ভুল বোঝাবুঝির অবসান হবে। এ বছর অনেকেই প্রবাসী পাত্র-পাত্রীর সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হবেন। ব্যক্তিগত স্বার্থরক্ষার চেয়ে সমষ্টিগত স্বার্থরক্ষার প্রতি আপনার লক্ষ্য থাকবে। তাই সামাজিক পরিমণ্ডলে এ মাসের মধ্যেই আপনি প্রায় সবার কাছেই গ্রহণযোগ্য হয়ে উঠবেন। বছরের শুরুতেই শিক্ষাক্ষেত্রে ভর্তি সংক্রান্ত জটিলতা মিটে যাবে। বছরের শেষে আর্থিক টানাপড়েনে পড়তে পারেন।
সিংহ রাশির শুভ সংখ্যা ১।
শুভ রং : হলুদ, সোনালি
শুভ রত্ন : চুনি্ন ও প্রবাল, শুভ ধাতু : তাম্র
কন্যা [২৪ আগস্ট-২৩ সেপ্টেম্বর]
কন্যা রাশির বৈশিষ্ট্য : কন্যা রাশি বুধ গ্রহের জাতক। কুমারী কন্যা পবিত্রতার প্রতীক, যার প্রসন্ন সরলতা মানুষের মনে আশ্বাস জাগায়। উচ্চাকাঙ্ক্ষা কন্যার চালিকাশক্তি। এ রাশির জাতক-জাতিকারা অত্যন্ত প্রশংসাপ্রিয় হয়। এরা সহানুভূতিশীল, খেয়ালি, আত্দবিশ্বাসী, রোমান্স ও আমোদপ্রিয় হয়ে থাকে। পরিস্থিতি মোকাবিলায় এদের ক্ষমতা অপরিসীম। আত্দাভিমান প্রবল এদের। সমালোচনা এদের সহ্য হয় না। এরা ভ্রমণপ্রিয়। তবে ঘরে থাকলে প্রবাসের আনন্দের সন্ধান করে আবার প্রবাসে থাকলে গৃহ সুখের জন্য লালায়িত হয়।
নতুন বছর কেমন যাবে : ছাত্রছাত্রীদের জন্য বছরটি অত্যন্ত শুভ। বিশেষ করে তরুণ-তরুণীরা এ বছর ভালো ফল পাবে। যারা বিদেশে অধ্যয়নে আগ্রহী, এ বছর তাদের অনেকেই এক্ষেত্রে সুযোগ পাবেন। ছাত্রছাত্রীদের কেউ কেউ বিভিন্ন প্রতিযোগিতামূলক কর্মকাণ্ডে অংশ নিয়ে সফল হবেন। গেল বছরের জঞ্জাল কেটে যাবে এ বছর। কোনো কোনো ক্ষেত্রে ভেঙে যাওয়া প্রেম জোড়া লাগতে পারে। বন্ধুত্বের সম্পর্ক কোনো কোনো ক্ষেত্রে প্রেমে রূপ নিতে পারে। এ বছর পরকীয়ার অপবাদ ঘুচবে, তবে সমাজসিদ্ধ নয় এমন কারও সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়তে পারেন। বছরের আগাগোড়াই স্বাস্থ্য মোটামুটি ভালো যাবে। অবিবাহিতদের হঠাৎ বিয়ের যোগ, নতুন কেউ বন্ধুত্বের হাত বাড়িয়ে দেবে। বিপরীত লিঙ্গের কেউ সুন্দর বুদ্ধি দিয়ে সাহায্য করতে পারে।
ব্যবসা ক্ষেত্রে সম্ভাবনার নতুন দিগন্ত উন্মোচিত হবে। বৈদেশিক যোগাযোগের ক্ষেত্রে দীর্ঘদিনের প্রচেষ্টা এ বছর সাফল্যের মুখ দেখবে। তৈরি পোশাক রপ্তানির ক্ষেত্রে গত বছর যে মন্দাভাব বিরাজ করছিল বছরের প্রথমার্ধেই তার অবসান হবে।
কন্যা রাশির শুভ সংখ্যা ৫।
শুভ রং : ফিরোজা, চকলেট।
শুভ রত্ন : পান্না ও নীলা, শুভ ধাতু : রুপা।
তুলা [২৪ সেপ্টেম্বর-২৩ অক্টোবর]
তুলা রাশির বৈশিষ্ট্য : তুলা রাশি শুক্রগ্রহের জাতক। এ রাশির জাতক-জাতিকার বিচার-বিশ্লেষণ ও লোকচরিত্র বোঝার ক্ষমতা প্রবল। এরা ভারসাম্যপূর্ণ, সুহৃদয় ও বুদ্ধিদীপ্ত হয়ে থাকে। জাতকের আনন্দের নেশা ও বিপরীত লিঙ্গের প্রতি আকর্ষণ প্রবল। ভোগবিলাসে এদের সুরুচির প্রকাশ ঘটে থাকে। ন্যায়সঙ্গত মত প্রকাশে পশ্চাৎপদ হয় না। এরা পরিশ্রমী ও কষ্টসহিষ্ণু।
নতুন বছর কেমন যাবে : এ বছর নতুন চমকে প্রাণ পাবে প্রেম। দীর্ঘদিনের বন্ধুত্বের সম্পর্ক একসময় প্রেমে রূপ নিতে পারে। যারা এ বছর নতুন প্রেমে জড়াবেন তাদের অনেকেই শেষ পর্যন্ত সাফল্যের মুখ দেখবেন। প্রেমের ব্যাপারে সাফল্যের পাশাপাশি দুই-একটি ব্যর্থতা ও প্রতারণার ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা একদম উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। সৃজনশীল কর্মকাণ্ডের ক্ষেত্রে এ বছর একাধিক ইতিবাচক ঘটনা ঘটবে। যারা সংগীতশিল্পী, তাদের কেউ কেউ বিদেশে অনুষ্ঠান করার জন্য আমন্ত্রিত হবেন। এ বছর সাহিত্যকর্মের জন্য বিদেশের কোনো প্রতিষ্ঠান থেকে সম্মাননা পাওয়ার সম্ভাবনা আছে। চিত্রশিল্পীদের কারও কারও অাঁকা ছবি বিদেশের মাটিতেও প্রশংসা কুড়াবে। এ বছর ছাত্রছাত্রীদের অনেকেরই ভাগ্য সুপ্রসন্ন হবে। অনেকটা আকস্মিকভাবেই বিদেশে পড়ালেখার সুযোগ পাবেন কেউ কেউ। এ বছর কখনো কখনো স্বাস্থ্য কিছুটা ভোগাবে। এ বছর সার্বিকভাবে আপনার আয় বৃদ্ধি পাবে। অন্যের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়নের ক্ষেত্রে বছরটি অত্যন্ত শুভ। তীর্থ ক্ষেত্র ভ্রমণের জন্যও বছরটি শুভ। গত বছরের অনেক অনিষ্পন্ন কাজ এ বছর সুষ্ঠুভাবে সম্পাদিত হবে। রাজনীতিবিদদের জন্য বছরটি ভালো যাবে। তবে বছরের শেষার্ধে তাদের চরম মূল্য দিতে হতে পারে।
তুলা রাশির শুভ সংখ্যা ৫ ও ৬।
শুভ রং : ফিরোজা, আকাশি ও সাদা।
শুভ রত্ন : হীরা-পান্না শুভ ধাতু : স্টিল।
বৃশ্চিক [২৪ অক্টোবর-২২ নভেম্বর]
বৃশ্চিক রাশির বৈশিষ্ট্য : রাশিচক্রের অষ্টম রাশি বৃশ্চিক, শাসকগ্রহ মঙ্গল। এ রাশির জাতক-জাতিকারা কাজপাগল, ইচ্ছাশক্তি প্রবল, প্রয়োজনে বিদ্যুৎ গতিতে সিদ্ধান্ত নিতে পারে। অন্যের দোষ ধরতে পারদর্শী, পান থেকে চুন খসলে তিক্ত কথা শুনিয়ে দিতে পশ্চাৎপদ হয় না। এরা স্বাধীনপ্রিয় ও দূরদর্শী, বহু আগে থেকেই পরিকল্পনা করে একটু একটু করে লক্ষ্যে পেঁৗছায়। প্রতিশোধ নেওয়ার ইচ্ছা দীর্ঘদিন মনের মধ্যে পুষে রাখতে পারে। এরা সহজে কাউকে ক্ষমা করতে পারে না। এদের আত্দমর্যাদা জ্ঞান অত্যন্ত প্রকট। সব সময় উত্তেজিত থাকে।
নতুন বছর কেমন যাবে : বিদেশ যাত্রার জন্য এ বছরই প্রস্তুতি নেওয়া উত্তম সময় এ জাতক-জাতিকার। কোনো কোনো ক্ষেত্রে আপনার বিদেশি বন্ধু এ ব্যাপারে কার্যকর সহযোগিতা প্রদান করবে। এ ছাড়া শেয়ার কিংবা অন্য কোনো ফটকা ব্যবসা থেকেও মুনাফা অর্জিত হবে। প্রেম ও রোমান্সের ক্ষেত্রে বছরটি অত্যন্ত শুভ। এ বছর বেশির ভাগ প্রেমের সম্পর্কই সাফল্যের মুখ দেখবে। প্রেমিক-প্রেমিকার মধ্যে দীর্ঘদিনের ভুল বোঝাবুঝির অবসান হবে। কোনো কোনো ক্ষেত্রে ভেঙে যাওয়া সম্পর্ক জোড়া লাগবে। এ বছর পরকীয়ার অপবাদ ঘুচবে। প্রেমের ব্যাপারে আরও কিছু চমকপ্রদ ঘটনা ঘটতে পারে। দীর্ঘদিনের প্রেম বিবাহে রূপ নেবে। ব্যক্তিত্বসম্পন্ন লোকের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা বাড়বে। অহেতুক চিন্তা থেকে পরিত্রাণ পাবেন। এ বছর সাহিত্য, সংগীত, নৃত্যকলা কিংবা অভিনয়ের মাধ্যমে প্রশংসার পাশাপাশি প্রচুর অর্থ উপার্জনেও সক্ষম হবেন। এ সুবাদে বিদেশ যাত্রারও সুযোগ আসতে পারে একাধিকবার। তবে সব সুযোগ কাজে লাগানো ঠিক হবে না।
বৃশ্চিক রাশির শুভ সংখ্যা ১,২,৩,৯।
শুভ রং : নীল, ঘিয়ে, চকলেট।
শুভ রত্ন : প্রবাল ও চুনি্ন, শুভ ধাতু : তামা।
ধনু [২৩ নভেম্বর-২১ ডিসেম্বর]
ধনু রাশির বৈশিষ্ট্য : ধনু রাশি বৃহস্পতি গ্রহের জাতক। এরা সত্যবাদী, আবেগী, প্রখর আত্দসম্মানবোধ সম্পন্ন এবং অন্যায় সহ্য করে না। অন্যরা সহজেই এদের ভুল বোঝে। এরা খুঁটিনাটি বিষয়ের প্রতি বেশি লক্ষ্য করে। অপ্রিয় সত্যকথা বলার জন্য শত্রু সৃষ্টি হয়। লক্ষ্য অর্জনে নিরলসভাবে কাজে ব্রতী হয়। সমাজসেবায় সুনাম লাভ করে থাকে। গুরু, শিক্ষক ও উপদেষ্টার ভাব প্রবল এদের মধ্যে।
নতুন বছর কেমন যাবে : অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মধ্যে যারা বকেয়া পাওনার ব্যাপারে উদ্বিগ্ন ছিলেন তাদের অনেকেই বছরের প্রথমার্ধের মধ্যেই পাওনা বুঝে পাবেন। শেয়ার ব্যবসায়ে বিনিয়োগ করেও লাভবান হবেন কেউ কেউ। বেকারদের অনেকেই এ বছর বিদেশ যাত্রার প্রচেষ্টায় সফল হবেন। এক্ষেত্রে কেউ কেউ প্রভাবশালীদের কাছ থেকে সার্বিক সহযোগিতা পাবেন। রাজনৈতিক পরিমণ্ডলে এ বছর নাটকীয় পরিবর্তনের সম্ভাবনা আছে। মুরবি্বদের সঙ্গে কখনো কখনো মতবিরোধ দেখা দিলেও তা সীমা অতিক্রম করবে না। প্রবাসী কারও সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে উঠলে তা ইতিবাচক পরিণতির দিকে এগুবে। সামাজিক মর্যাদা বৃদ্ধি পাওয়ার সম্ভাবনা আছে। অর্থবিত্তের নতুন দুয়ার উন্মোচন হবে। আটকে থাকা পদোন্নতি বছরের শুরুতেই বিবেচনার জন্য উপস্থাপন করা হতে পারে।
ধনু রাশির শুভ সংখ্যা ৩ ও ৯।
শুভ রং : আকাশি ও বেগুনি।
শুভ রত্ন : পোখারাজ, শুভ ধাতু : ব্রহ্মযষ্টির মূল।
মকর [২২ ডিসেম্বর-২০ জানুয়ারী]
মকর রাশির বৈশিষ্ট্য : রাশি বলয়ের দশম রাশি মকর। এরা শনিগ্রহের জাতক। ধৈর্য, শ্রম ও কষ্ট সহিষ্ণুতার প্রতীক মকর জাতক-জাতিকা। এদের অন্তর্দৃষ্টি তীক্ষ্ন। প্রায় সর্ব ক্ষেত্রেই এরা যোগ্য দেখাতে পারে। কর্তব্য, প্রেম ও সামাজিকতার ব্যাপারে সাধারণ থেকে একটু স্বতন্ত্র হয়। দায়িত্বজ্ঞান, সময়জ্ঞান ও নিয়মনিষ্ঠা প্রবল হয়ে থাকে।
নতুন বছর কেমন যাবে : বছরটি শিক্ষার্থীদের জন্য বিশেষ সাফল্যের বছর হিসেবে চিহ্নিত হয়ে থাকতে পারে। কেউ কেউ ছাত্র রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়ার কারণে পড়ালেখায় অমনোযোগী হওয়া সত্ত্বেও পরীক্ষায় ভালো ফলাফল অর্জন করবেন। এ বছর কেউ কেউ কাঙ্ক্ষিত বিষয় নিয়ে পড়ালেখার সুযোগ পাবেন। অদূরদর্শী দৃষ্টিভঙ্গির কারণে আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়তে পারেন। পরিবারের প্রতি মনোযোগ বাড়াতে হবে। ব্যবসার নতুন দুয়ার খুলে যাবে এ বছর। বৈদেশিক বাণিজ্যে আগ্রহীরা গত বছর যে জটিলতা অতিক্রম করেছিলেন, এ বছরের শুরুতে তার রেশ থাকলেও প্রথম তিন মাস অতিক্রান্ত হওয়ার পর সুদিন দেখতে পাবেন। সময়োচিত সিদ্ধান্ত গ্রহণের ফলে এ বছর একাধিক পারিবারিক কলহের সুষ্ঠু নিষ্পত্তি ঘটার সম্ভাবনা আছে। গত বছরের অসমাপ্ত ব্যবসায়িক কর্মকাণ্ডগুলোও এ বছরের শুরুতেই ইতি টানবে।
মকর রাশির শুভ সংখ্যা ৮।
শুভ রং : নীল, চকোলেট, ক্রিম, সবুজ। শুভ রত্ন : নীলা, ক্যাটস আই, শুভ ধাতু : শিসা ও লৌহ
কুম্ভ [২১ জানুয়ারী-১৮ ফেব্রুয়ারী]
কুম্ভ রাশির বৈশিষ্ট্য : ইউরেনাসের জাতক কুম্ভ রাশি। এরা নিঃস্বার্থ ও পবিত্র হয়ে থাকে। এদের আত্দবিশ্বাস প্রবল হয়। এরা নিষ্ঠাবান, মানবপ্রেমী, সংবেদনশীল, আত্দাভিমানী ও আবদারপ্রিয়। জনপ্রিয় হলেও ঘনিষ্ঠ বন্ধুর সংখ্যা কম হয়ে থাক। ভোগ ও ত্যাগ দুই ব্যাপারেই বিশেষভাবে পারদর্শী। অত্যন্ত আরামপ্রিয় ও কিছুটা অবাস্তববাদিতার জন্য সাফল্যে বাধা আসে। প্রবল আশাবাদী বলে কখনো কখনো বিশ্বাস ভঙ্গের শিকার হয়। অতিরিক্ত আত্দবিশ্বাস ও ভাবপ্রবণতাকে প্রশ্রয় দিলে এদের জীবন নিরাশপূর্ণ হয়ে উঠতে পারে।
বছরটি কেমন যাবে : এবছর নতুন উদ্দীপনায় জেগে উঠুন। যারা পরীক্ষার ফলাফল নিয়ে দুশ্চিন্তায় ছিলেন, এ বছর তাদের কেউ কেউ প্রত্যাশার চেয়ে ভালো ফলাফল অর্জন করবেন। রাজনীতিতে যোগ দিতে হতে পারে। বেকারদের জন্য বছরটি ঘটনাবহুল হবে। এ ছাড়া শিক্ষকদের সঙ্গে মতবিরোধেও জড়িয়ে পড়তে পারেন কেউ কেউ। সম্পত্তির ভাগ-বাটোয়ারা নিয়ে একাধিকবার পারিবারিক কলহের সৃষ্টি হতে পারে। এ বছর একাধিক সফল প্রেমের শুভ সূচনা ঘটবে। পাশাপাশি পরকীয়ার ঘটনা ঘটতে পারে বেশ কয়েকটি। অতি আনন্দ নিরানন্দের কারণ হতে পারে নববিবাহিত দম্পতিদের ক্ষেত্রে, সংযমী হতে হবে।
কুম্ভ রাশির শুভ সংখ্যা : ১, ৩ ও ৯।
শুভ রং : নীল, গাঢ় সবুজ ও বেগুনি।
শুভ রত্ন : নীলা- ক্যাটস আই, শুভ ধাতু : সিসা-স্টিল।
মীন [১৯ ফেব্রুয়ারি-২০ মার্চ]
মীন রাশির বৈশিষ্ট্য : রাশি বলয়ের সর্বশেষ রাশি মীন, গ্রহ বৃহস্পতি। এই রাশির জাতক-জাতিকারা তীব্র কৌতূহলী এবং জীবনকে দেখে বিশেষ দৃষ্ঠিকোণ থেকে। সহানুভূতি ও ক্ষমা এদের বিশেষ গুণ। প্রেম ও ধর্মের প্রতি বিশেষ আগ্রহ থাকে। মানুষের মন ও চিন্তাকে সঠিকভাবে পড়তে পারে।
নতুন বছর কেমন যাবে : এ বছর প্রেমের ক্ষেত্রে চমকপ্রদ কিছু ঘটনা ঘটতে পারে। অন্যের প্ররোচনায় প্রেমিক-প্রেমিকার মধ্যে যাতে কোনোরকম ভুল বোঝাবুঝির সৃষ্টি না হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। বন্ধুত্বের সম্পর্ক কোনো কোনো ক্ষেত্রে প্রেমে রূপ নিতে পারে। যারা নতুন প্রেমে জড়িয়েছেন তাদের কারও কারও সম্পর্ক বিয়েতে গড়ানোর সম্ভাবনা আছে। এ বছর ব্যবসা ক্ষেত্রে নতুন পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা সহজ হবে। বিদেশ যাত্রার ক্ষেত্রেও সাফল্যের ঘটনা ঘটবে বেশির ভাগ ক্ষেত্রে। পারিবারিক পরিমণ্ডলে এ বছর আপনাকে কুশলী হতে হবে। পরিবারের কেউ কেউ চাকরি ক্ষেত্রে আপনার আটকে থাকা পদোন্নতির ইতিবাচক সিদ্ধান্তের ব্যাপারে সরাসরি বা প্রত্যক্ষ ভূমিকা রাখতে সক্ষম হবে। বছরের বেশিরভাগ সময়ই আপনার বাড়ি মেহমানে মুখরিত থাকবে।
মীন রাশির শুভ সংখ্যা : ৪ ও ৭। শুভ রং : বেগুনি, শুভ রত্ন : রক্তমুখী নীলা, মুক্তা, ওপ্যাল, শুভ ধাতু : রুপা-সোনা।
সৌজন্যে : বাংলাদেশ প্রতিদিন।
এনসিএন : ১৩৭৮৮

comments (0) / Read More

সর্বশেষ পোষ্টস